আগস্ট ০৩, ২০২০ ০৭:৪২ Asia/Dhaka
  • জামশিদ শরমাহদ (বামে- ফাইল ছবি, ডানে- আটকের পরের ছবি)
    জামশিদ শরমাহদ (বামে- ফাইল ছবি, ডানে- আটকের পরের ছবি)

আমেরিকা-ভিত্তিক ইরানবিরোধী সন্ত্রাসী গোষ্ঠী ‘তোন্দার’-এর প্রধানকে আটকের ঘটনায় ইরানের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করেছে আমেরিকা। মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তোন্দারের প্রধান জামশিদ শরমাহদের প্রতি সমর্থন ঘোষণা করে তার সঙ্গে আচরণের ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক আইনের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শনের জন্য তেহরানের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

ওই মন্ত্রণালয় তার ভাষায় দাবি করেছে, ভুয়া অভিযোগে ইরানি ও বিদেশি নাগরিকদের আটক করার ক্ষেত্রে তেহরানের দীর্ঘ ইতিহাস রয়েছে।  

এদিকে, ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় শরমাহদের মতো সন্ত্রাসীদেরকে আশ্রয়-প্রশ্রয় এবং ইরানবিরোধী সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোকে পৃষ্ঠপোষকতা দেয়ার জন্য মার্কিন সরকারকে দায়ী করেছে।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

ইরানের গোয়েন্দা মন্ত্রণালয় শনিবার এক বিবৃতিতে জানায়, “আমেরিকায় বসে ইরানে সশস্ত্র ও নাশকতামূলক অভিযান পরিচালনাকারী সন্ত্রাসী গোষ্ঠী তোন্দার-এর প্রধান জামশিদ শরমাহদকে ইরানের নিরাপত্তা বাহিনী এক জটিল অভিযান চালিয়ে আটক করেছে।”

শরমাহ্‌দ ২০০৮ সালে ইরানের মধ্যাঞ্চলীয় ফার্স প্রদেশের প্রধান শহর শিরাজের সাইয়্যেদুশ শোহাদা হোসেইনিয়ায় বোমা হামলার পরিকল্পনা ও তা বাস্তবায়ন করে। ওই সন্ত্রাসী হামলায় ১৪ জন নিহত ও ২১৫ জন আহত হন।

এ ছাড়া, গত কয়েক বছরে এই সন্ত্রাসী গোষ্ঠী ইরানে বহু সন্ত্রাসী হামলা চালানোর পরিকল্পনা করে যেগুলো ইরানের নিরাপত্তা বাহিনীর সতর্কতার কারণে বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়নি। এসব পরিকল্পনার মধ্যে ছিল শিরাজের ‘সেইভান্দ’ বাধ উড়িয়ে দেয়া, তেহরানের বইমেলায় সায়ানাইড বোমা হামলা এবং ইমাম খোমেনী (রহ.)-এর মাজারে বোমা বিস্ফোরণ।#

পার্সটুডে/এমএমআই/৩

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ

মন্তব্য