আগস্ট ০৭, ২০২০ ১৬:০৯ Asia/Dhaka
  • ইরানের সংসদের জাতীয় নিরাপত্তা ও পররাষ্ট্র নীতি বিষয়ক কমিশনের মুখপাত্র আবুলফজল আমুয়ি
    ইরানের সংসদের জাতীয় নিরাপত্তা ও পররাষ্ট্র নীতি বিষয়ক কমিশনের মুখপাত্র আবুলফজল আমুয়ি

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ইরান বিষয়ক বিশেষ প্রতিনিধি ব্রায়ান হুকের পদত্যাগের খবরে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে তেহরান। ইরানের সংসদের জাতীয় নিরাপত্তা ও পররাষ্ট্র নীতি বিষয়ক কমিশনের মুখপাত্র আবুলফজল আমুয়ি বলেছেন, ব্রায়ান হুক ‘কূটনৈতিক শিষ্টাচারবিরোধী আচরণ’ শেষে কোনো অর্জন ছাড়াই বিদায় নিয়েছেন।

ব্রায়ান হুক বৃহস্পতিবার রাতে জানিয়েছেন, তিনি ইরান বিষয়ক বিশেষ প্রতিনিধির পদে ইস্তফা দিয়েছেন এবং ভেনিজুয়েলা বিষয়ক বিশেষ প্রতিনিধিকে তার স্থলাভিষিক্ত করা হয়েছে।

এ সম্পর্কে আমুয়ি আজ (শুক্রবার) নিজের অফিসিয়াল টুইটার পেজে লিখেছেন, “ইরান বিষয়ক এক ব্যর্থ প্রতিনিধি বিদায় নিয়েছেন এবং ভেনিজুয়েলা বিষয়ক আরেক ব্যর্থ প্রতিনিধি তার স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন।”

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ইরান বিষয়ক বিশেষ প্রতিনিধি ব্রায়ান হুক

ইরানের ওপর সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগ ও কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপে হুক উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করেন। কিন্তু সমালোচকরা বলছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ইরানকে আলোচনার টেবিলে ফিরিয়ে আনার যে লক্ষ্য নির্ধারণ করেছিলেন তা বাস্তবায়ন করতে হুক চরম ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন। মার্কিন চাপের মুখে ইরান যে কেবল আলোচনায় বসতে রাজি হয়নি তা নয় উল্টো তেহরানের ওয়াশিংটন-বিরোধী মনোভাব আরো দৃঢ় হয়েছে।

ব্রায়ান হুক পদত্যাগ করার একদিন আগে বুধবার হুক নিউ ইয়র্ক টাইমসকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, পম্পেও সরকারের সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের নীতির কারণে ইরান আগের চেয়ে দুর্বল হয়ে গেছে। তিনি বলেন, “আমরা ইরান সরকারের সঙ্গে নতুন একটি চুক্তি করতে চাই। আমাদের চাপের কারণে ইরানের অর্থনীতি ভেঙে পড়েছে।”

সমালোচকরা বলছেন, ইরানের অর্থনীতি ভেঙে পড়ুক আর না পড়ুক শেষ পর্যন্ত ব্রায়ান হুক নিজেই ভেঙে পড়েছেন। #

পার্সটুডে/এমএমআই/৭

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ

মন্তব্য