সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০ ২২:০১ Asia/Dhaka

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান এবার তৃতীয় প্রজন্মের নৌ স্ট্রাইক ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র উন্মোচন করেছে। ক্ষেপণাস্ত্রের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসির শীর্ষ কমান্ডার মেজর জেনারেল হোসেইন সালামি উপস্থিত ছিলেন। তিনি বলেন, ইরান কখনো শক্তি অর্জনের প্রচেষ্টা থামাবে না।

নতুন এ ক্ষেপণাস্ত্রের নাম হলো জুলফিকার-ই বাসির যার পাল্লা ৭০০ কিলোমিটার। এর আগে ইরান খালিজ-ই ফার্স ও হরমুজ নামে দুটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করেছে যা ভ্রাম্যমান লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম।  

নতুন এই ক্ষেপণাস্ত্রে এমন ওয়ারহেড ব্যবহার করা হবে যা ‘অপটিক্যাল সিকার হেড’ দ্বারা গাইডেড। জুলফিকার-ই বাসির ক্ষেপণাস্ত্রের ভূমি থেকে ভূমিতে নিক্ষেপের ভার্সন রয়েছে এবং তারও পাল্লা ৭০০ থেকে ৭৫০ কিলোমিটার।

মেজর জেনারেল হোসেইন সালামি

ইরান এর আগে দেশের বাইরের লক্ষ্যবস্তুতে নিজস্ব প্রযুক্তির ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে হামলা চালিয়েছে। সিরিয়ায় তৎপর উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশের বিরুদ্ধে ইরান থেকে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়েছিল। এছাড়া, ইরানের ইসলামি বিপ্লবি গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি’র কুদস ফোর্সের সাবেক কমান্ডার লেফটেন্যনান্ট জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার পর ইরাকের আইন আল-আসাদ মার্কিন ঘাঁটিতে হামলা চালানো হয়। ওই হামলায় মার্কিন ঘাঁটির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়।#   

পার্সটুডে/এসআইবি/২৭

ট্যাগ

মন্তব্য