অক্টোবর ২৭, ২০২০ ১৬:০১ Asia/Dhaka
  • ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়
    ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের ইসলাম অবমাননাকর বক্তব্যের প্রতিবাদ জানাতে তেহরানে নিযুক্ত ফরাসি চার্জ দ্যা অ্যাফেয়ার্সকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়েছে। ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরন তার দেশে বিশ্বনবী (সা.)-এর অবমাননাকর কার্টুন প্রকাশ অব্যাহত থাকবে বলে ঘোষণা করার পর এ পদক্ষেপ নিল ইরান।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগের বরাত দিয়ে আমাদের সংবাদদাতা জানিয়েছেন, তেহরানে বর্তমানে ফরাসি রাষ্ট্রদূত উপস্থিত না থাকায় তার পরিবর্তে ফ্রান্সের চার্জ দ্যা অ্যাফেয়ার্স ফ্লোরেন ইদালুকে গতকাল (সোমবার) এই মন্ত্রণালয়ে ডেকে পাঠানো হয়।

এ সময় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ইউরোপ বিভাগের মহাপরিচালক ফরাসি কূটনীতিককে জানান, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইসলাম অবমাননার বক্তব্য দিয়ে বিশ্বের কোটি কোটি মুসলমানের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ ঘটিয়েছেন। তিনি আরো বলেন, মহানবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.)-এর যেকোনো ধরনের অবমাননা, সেটা রাষ্ট্রের যত উচ্চ পদ থেকেই করা হোক না কেন তা নিন্দনীয়।

ইরানের এই কূটনীতিক বলেন, ফরাসি প্রেসিডেন্টের ইসলাম অবমাননাকর বক্তব্যকে কোনো অবস্থায়  বাক স্বাধীনতার নামে চালিয়ে দেয়া যাবে না। তিনি আরো বলেন, একজন উগ্রবাদী লোকের সহিংস আচরণের প্রতিক্রিয়ায় ফরাসি কর্মকর্তারা যে অজ্ঞতাপূর্ণ কথা বলছেন তাতে উল্টো বহু মানুষ উগ্র চিন্তাধারার দিকে ধাবিত হবে।

এ সময় তেহরানে নিযুক্ত ফরাসি চার্জ দ্যা অ্যাফেয়ার্স বলেন, তিনি যথাশীঘ্র সম্ভব ইরানের এ প্রতিবাদের কথা প্যারিসকে জানিয়ে দেবেন।

ফ্রান্সে সম্প্রতি একজন স্কুল শিক্ষক ক্লাসে শিক্ষার্থীদের বাক-স্বাধীনতা বোঝানোর নামে মহানবী (স)’র জন্য অবমাননাকর কার্টুন দেখায়। পরে ওই শিক্ষককে আবদুল্লাখ আনজোরভ নামে এক ব্যক্তি হত্যা করে। ওই স্কুল শিক্ষক নিহত হওয়ার পরপরই পুলিশ হত্যাকারীকে গুলি করে হত্যা করে। এরপর ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ওই কার্টুন প্রকাশকে বাকস্বাধীনতা বলে মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, এ ধরনের কার্টুন প্রকাশ অব্যাহত থাকবে।#

পার্সটুডে/এমএমআই/২৭

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ

মন্তব্য