মার্চ ০৪, ২০২১ ০৬:১৯ Asia/Dhaka
  • ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খাতিবজাদে
    ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খাতিবজাদে

ইরান বলেছে, অপর দেশের বিরুদ্ধে অভিযোগ উত্থাপন করার আগে আমেরিকার উচিত গত ছয় বছর ধরে ইয়েমেনে যে অপরাধযজ্ঞের অংশীদার হয়েছে তার জবাবদিহী করা। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন ইয়েমেন পরিস্থিতি নিয়ে ইরানের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ তুলেছেন তার জবাবে এ মন্তব্য করেছেন ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খাতিবজাদে।

তিনি বলেছেন, ইয়েমেনের ওপর গত ছয় বছর ধরে আগ্রাসন চালিয়ে যারা দেশটির হাজার হাজার মানুষকে হত্যা ও দেশটির অবকাঠামো ধ্বংস করে দিয়েছে তারা আজ ইয়েমেন যুদ্ধ থেকে পালিয়ে বাঁচার চেষ্টা করছে। আর কেটে পড়ার আগে তারা ইয়েমেন যুদ্ধের দায় ইরানের ওপর চাপানোর চেষ্টা করছে।

খাতিবজাদে বলেন, ইয়েমেন আগ্রাসনে সৌদি আরবকে পৃষ্ঠপোষকতা দেয়া বন্ধ করার পরিবর্তে ট্রাম্প প্রশাসনের মতো নয়া বাইডেন প্রশাসনও ইয়েমেন সংকটের জন্য ইরানকে দায়ী করার চেষ্টা করছে।

ইরানের এই মুখপাত্র বলেন, তার দেশ গত ছয় বছর ধরে বলে এসেছে যে, সামরিক উপায়ে ইয়েমেন সংকটের সমাধান হবে  না। এছাড়া, ইয়েমেনে আগ্রাসন বন্ধ করে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে জাতিসংঘের প্রতিটি উদ্যোগকে তেহরান স্বাগত জানিয়েছে।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন মঙ্গলবার এক বক্তব্যে দাবি করেন, ইয়েমেনিরা ইরানি অস্ত্র, গোয়েন্দা তথ্য ও সার্বিক পৃষ্ঠপোষকতা নিয়ে সৌদি আরবের বিরুদ্ধে হামলা চালাচ্ছে যা সৌদির অবকাঠামোগুলোকে হুমকির মুখে ঠেলে দিয়েছে। সৌদি আরবের অবকাঠামোর জন্য এমন সময় ব্লিঙ্কেন সমবেদনা দেখালেন যখন গত ছয় বছর ধরে এই সৌদি আরব আমেরিকার অস্ত্র দিয়ে ইয়েমেনের অবকাঠামো পুরোপুরি ধ্বংস করে দিয়েছে।#

পার্সটুডে/এমএমআই/৪

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ