মার্চ ০৬, ২০২১ ০৬:৩১ Asia/Dhaka
  • সম্প্রতি ওমান সাগরে ইসরাইলি মালিকানাধীন এই জাহাজে বিস্ফোরণের ফলে আগুন লেগে গিয়েছিল।
    সম্প্রতি ওমান সাগরে ইসরাইলি মালিকানাধীন এই জাহাজে বিস্ফোরণের ফলে আগুন লেগে গিয়েছিল।

ওমান সাগরে সম্প্রতি ইসরাইলি মালিকানাধীন একটি জাহাজে বিস্ফোরণের জন্য ইরানকে দায়ী করে তেল আবিব যে বক্তব্য দিয়েছে তাকে ভিত্তিহীন বলে প্রত্যাখ্যান করেছে তেহরান। ইরান একই সঙ্গে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইসরাইলের পক্ষ থেকে যেকোনো ভুল হিসাব-নিকাশের পরিণতির ব্যাপারে গোটা বিশ্বকে সতর্ক করে দিয়েছে।

জাতিসংঘে নিযুক্ত ইরানের স্থায়ী প্রতিনিধি মাজিদ তাখতে রাভানচি এই সংস্থার মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস ও নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতির কাছে লেখা আলাদা আলাদা চিঠিতে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন।তিনি বলেছেন, সম্পূর্ণ ধারনাপ্রসূতভাবে ইহুদিবাদী ইসরাইল তার মালিকানাধীন জাহাজে হামলার জন্য ইরানকে দায়ী করছে।

রাভানচি বলেন, ওমান সাগরের সাম্প্রতিক ওই হামলার ধরন থেকে বোঝা যায়, এটি এমন এক গোষ্ঠীর কাজ যারা তাদের অবৈধ লক্ষ্য অর্জন করার লক্ষ্যে ‘শয়তানি নীতি’ অনুসরণ করছে।

গত মাসের শেষদিকে ওমান সাগরে অবস্থানরত একটি ইসরাইলি কার্গো জাহাজে বিস্ফোরণের ফলে আগুন ধরে যায়। আগুন দ্রুত নিয়ন্ত্রণে আনা হয় এবং এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। কোনো প্রমাণ উপস্থাপন না করেই তেল আবিব ওই ঘটনার জন্য ইরানকে দায়ী করে।

জাতিসংঘে নিযুক্ত ইরানের স্থায়ী প্রতিনিধি মাজিদ তাখতে রাভানচি

জাতিসংঘে নিযুক্ত ইরানের স্থায়ী প্রতিনিধি বলেন, ইরানের বিরুদ্ধে তেল আবিবের অভিযোগ উত্থাপনের উদ্দেশ্য ইসরাইলকে অসহায় হিসেবে তুলে ধরা এবং মধ্যপ্রাচ্যে ইহুদিবাদীদের দখলদারিত্ব ও অবৈধ তৎপরতাকে বৈধতা দেয়ার চেষ্টা করা। রাভানচি বলেন, গোটা বিশ্বের উচিত ইহুদিবাদী ইসরাইলকে ইরানের বিরুদ্ধে যেকোনো সামরিক হঠকারিতা থেকে বিরত রাখা। কারণ, তেল আবিব কোনো ভুল হিসাব-নিকাশ করলে তার পরিণতি তাকেই ভোগ করতে হবে।#

পার্সটুডে/এমএমআই/৬

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।  

 

ট্যাগ