মার্চ ০৭, ২০২১ ১১:৩৩ Asia/Dhaka
  • ইরাকি প্রধানমন্ত্রী মুস্তাফা আল-কাজেমি (বামে) ও প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি
    ইরাকি প্রধানমন্ত্রী মুস্তাফা আল-কাজেমি (বামে) ও প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি

প্রতিবেশী ইরাকে বিদেশি যেকোনো হস্তক্ষেপের বিরোধিতা করেছেন ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি। তিনি বলেছেন, ইরাকের নিরাপত্তা, স্থিতিশীলতা, সার্বভৌমত্ব ও সংহতি ইরানের কাছে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

গতকাল (শনিবার) ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মুস্তাফা আল-কাজেমির সঙ্গে টেলিফোন আলাপে এসব কথা বলেন প্রেসিডেন্ট রুহানি। এসময় তিনি আরো বলেন, ইরাকের অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করার চরম বিরোধী ইরান। এ ধরনের হস্তক্ষেপের কারণে ইরাক এবং পুরো মধ্যপ্রাচ্যের চিত্র আজ ভিন্ন।

প্রেসিডেন্ট রুহানি সুস্পষ্ট করে বলেন, ইরান মনে করে ইরাকসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে মার্কিন সেনাদের উপস্থিতি এ অঞ্চলে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির মূল কারণ। প্রকৃতপক্ষে আমেরিকা সব সময় এমন ধ্বংসাত্মক ভূমিকা পালন করেছে।

প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেন, ইরান মনে করে মার্কিন সেনা বহিষ্কারের ব্যাপারে ইরাকের জাতীয় সংসদে গত বছরের জানুয়ারি মাসে যে বিল পাস হয়েছে তা পরিপূর্ণভাবে বাস্তবায়ন করার মধ্যদিয়েই ইরাকে শান্তি এবং স্থিতিশীলতা পুনঃপ্রতিষ্ঠা হতে পারে। এ অঞ্চলের সমস্যা আঞ্চলিক দেশগুলো মিলেই সমাধান করবে, বাইরের শক্তির সাহায্যে নয়।

ইরাকি সঙ্গে রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিকসহ সব ধরনের সম্পর্ক আরও ঘনিষ্ঠ করতে ইরান প্রস্তুত বলেও ঘোষণা করেন প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি।#

পার্সটুডে/এসআইবি/৭

ট্যাগ