সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২১ ০৫:৫৭ Asia/Dhaka

ইরানের পরমাণু কেন্দ্রগুলোতে স্থাপিত আইএইএ’র পর্যবেক্ষণ ক্যামেরাগুলো সার্ভিস করার পাশাপাশি এগুলোর মেমোরি কার্ড প্রতিস্থাপন করতে সম্মত হয়েছে দু’পক্ষ। শিগগিরই এ কাজ করার জন্য আইএইএ’র পরিদর্শকরা তেহরান সফরে আসবেন।

আইএইএ’র মহাপরিচালক রাফায়েল গ্রোসির একদিনের ইরান সফরে গতকাল (রোববার) এ সমঝোতা হয়। ইরানের আণবিক শক্তি সংস্থার প্রধান মোহাম্মাদ ইসলামির সঙ্গে গ্রোসির সাক্ষাতের পর দুই কর্মকর্তা এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে ওই সমঝোতার কথা জানান। তারা বলেন, দু’পক্ষ এনপিটি চুক্তির সম্পূরক প্রটোকলের আওতায় পারস্পরিক সহযোগিতার ব্যাপারে আলোচনা চালিয়ে যেতে সম্মত হয়েছে।

এর আগে গ্রোসি সম্প্রতি তার ত্রৈমাসিক প্রতিবেদনে জানিয়েছিলেন, ইরানের পরমাণু কর্মসূচির ওপর তার সংস্থার পর্যবেক্ষণ কাজ ব্যাপকভাবে সীমিত হয়ে পড়েছে যা উদ্বেগজনক।

মোহাম্মাদ ইসলামি যৌথ সংবাদ সম্মেলনে বলেন, আইএইএ’র মহাপরিচালক রাফায়েল গ্রোসি শিগগিরই আবার তেহরান সফরে আসবেন।

রোববার তেহরানে মোহাম্মাদ ইসলামির (ডানে) সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন রাফায়েল গ্রোসি

ভিয়েনায় গত এপ্রিল থেকে ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে ইরানের পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের যে সংলাপ চলছে তা ফলপ্রসূ করার জন্য আইএইএ’র সঙ্গে তেহরানের এ সমঝোতাকে গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। আমেরিকা পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গিয়ে ইরানের ওপর যে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে তা প্রত্যাহার না করার কারণে তেহরান আইএইএ’কে সহযোগিতা করা কমিয়ে দিয়েছিল।

ইরান বলেছে, পরমাণু সমঝোতা আবার কার্যকর না হলে এবং নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা না হলে এনপিটি চুক্তির বাইরে আইএইএ’কে বিন্দুমাত্র সহযোগিতা করা হবে না। গত জুন মাসে ইরানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে ভিয়েনা সংলাপ বন্ধ রয়েছে। শিগগিরই এ সংলাপ আবার শুরু হবে বলে আশা করা হচ্ছে।#

পার্সটুডে/এমএমআই/১৩

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ