সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২১ ২৩:০৬ Asia/Dhaka
  • ‘রেডিও তেহরানের মতো সত্যের পথে অবিচল বেতারকেন্দ্র আর দ্বিতীয়টি হবে না’

মহাশয়, বিশ্ব বেতারের আঙিনায় রেডিও তেহরান যেন সম্রাট। রেডিও তেহরান যা দিয়েছে শ্রোতারা তা কোনদিন ভুলবে না। বিশ্বসংবাদ থেকে দৃষ্টিপাত, দর্পন থেকে কথাবার্তা, রংধনু থেকে আদর্শ মানুষ গড়ার কৌশল, কোরআনের আলো থেকে আসমাউল হুসনা, ইরান ভ্রমণ থেকে ইরান-ইরাক যুদ্ধের ইতিহাস, প্রিয়জন থেকে আলাপন সবকিছুতেই রেডিও তেহরান তার নিজস্ব স্বাক্ষর এঁকে দিতে পেরেছে।

রেডিও তেহরানের মতো সত্যের পথে অবিচল, নিরপেক্ষ, মুক্তমনা, ইসলামিক আদর্শমনস্ক, আধুনিক, উদ্যমী এবং শিশুর সারল্যে ভরপুর শ্রোতাপ্রিয় বেতার কেন্দ্র সম্ভবত বিশ্বে আর দ্বিতীয়টি হবে না। বিশ্বে অনেক বাংলা বেতার কেন্দ্র আছে বটে তারা অনুষ্ঠান প্রচার করে কিন্তু রেডিও তেহরানের মত শ্রোতাপ্রিয় কয়টি বেতার কেন্দ্র হতে পেরেছে?

আশা করব ভবিষ্যতেও রেডিও তেহরান যেন রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক কারণে পিছুপা না হয়ে সিংহ বিক্রম প্রদর্শন করে গড়ে দিতে পারে সোনার বিশ্ব, গড়ে দিতে পারে সমৃদ্ধ বিশ্ব পরিবেশ।

রেডিও তেহরানের ক্লান্তিহীন পথ চলা। চরৈবেতি মন্ত্রে রেডিও তেহরান উদ্বুদ্ধ। শিশু-কিশোরদের শিখিয়েছে স্বপ্ন সত্যি হতে গেলে আগে স্বপ্নটা দেখতে হবে। একটা সুন্দর পৃথিবীর জন্য আগামীর শপথ রেডিও তেহরানের কণ্ঠে ধ্বনিত হয় বারবার। কর্তব্যে রেডিও তেহরান থেকেছে কঠিন, নিজের বিশ্বাসে রেডিও তেহরান সূর্যের মতো।

ছেলে বুড়ো, কৃষক থেকে চাকুরীজীবী, ব্যবসায়ী সকলের কাছেই রেডিও তেহেরান সর্বসাধারণের বেতার কেন্দ্র। রেডিও তেহরান যেন হয়ে উঠেছে শ্রোতাদের আপন বেতার কেন্দ্র।

 

ধন্যবাদান্তে

বিধান চন্দ্র সান্যাল

ঢাকা কলোনী, বালুরঘাট

দক্ষিণ দিনাজপুর, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত।

 

ট্যাগ