সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২১ ১৫:৪৯ Asia/Dhaka
  • হোসেইন আমির আব্দুল্লাহিয়ান ও  লিজ ট্রুস
    হোসেইন আমির আব্দুল্লাহিয়ান ও লিজ ট্রুস

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আব্দুল্লাহিয়ান বলেছেন, ইউরোপীয় দেশগুলোর নীরবতা ও নিষ্ক্রিয়তা ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা এবং শত্রুতামূলক পদক্ষেপ নিতে আমেরিকাকে নিতান্তই সহায়তা করেছে।

নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৬তম বার্ষিক অধিবেশনের অবকাশে ব্রিটেনের নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রুসের সঙ্গে গতকাল (বুধবার) এক বৈঠকে এসব কথা বলেছেন ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ইউরোপের দেশগুলোর মনোভাব ইরানের বিরুদ্ধে অবৈধ ও বর্বর নিষেধাজ্ঞা আরোপে আমেরিকাকে উৎসাহিত করেছে, একই সময়ে তারা দাবি করছে যে, তারা পরমাণু সমঝোতায় ফেরার চেষ্টা করছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর ২০১৮ সালে তিনি আমেরিকাকে পরমাণু সমঝোতা থেকে একতরফাভাবে বের করে নেন। এরপর ইরানের ওপর দফায় দফায় নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ক্ষমতায় আসার পর সেই ধারা অব্যাহত রয়েছে। বিশ্বের যেকোনো দেশকে ইরানের বিরুদ্ধে আরোপ করা নিষেধাজ্ঞা মেনে চলতে বাধ্য করছে আমেরিকা। অন্যদিকে, পরমাণু সমঝোতায় ফিরে আসার ব্যাপারে ওয়াশিংটনকে উৎসাহিত করে তোলার ক্ষেত্রে সামান্যতম পদক্ষেপ না নিয়ে বরং মার্কিন প্রশাসনকে নিষেধাজ্ঞা আরোপে সহযোগিতা করে যাচ্ছে ইউরোপ। বিভিন্ন সময় তারা পরমাণু সমঝোতা পুরোপুরি বাস্তবায়ন করার প্রতিশ্রুতি দিলেও কাজেকর্মে তার কোনো চিহ্ন নেই।

গতকালের বৈঠকে আমির আব্দুল্লাহিয়ান এসব প্রসঙ্গ উল্লেখ করে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে বলেছেন, দুর্ভাগ্যজনকভাবে ব্রিটেনও ইউরোপীয় দেশগুলোর এই নীরবতা ও নিষ্ক্রিয়তার অংশীদার।#

পার্সটুডে/এসআইবি/২৩

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ