জানুয়ারি ২৪, ২০২২ ১৪:২৮ Asia/Dhaka
  • আনসারুল্লাহ আন্দোলনের শীর্ষ পর্যায়ের নেতা মুহাম্মদ আল-বুখাইতি
    আনসারুল্লাহ আন্দোলনের শীর্ষ পর্যায়ের নেতা মুহাম্মদ আল-বুখাইতি

ইয়েমেনের হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলনের শীর্ষ পর্যায়ের নেতা মুহাম্মদ আল-বুখাইতি বলেছেন, তার দেশের ওপর সৌদি নেতৃত্বাধীন কথিত আরব জোটের আগ্রাসন বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত পাল্টা অভিযান চলবে।

আনসারুল্লাহ আন্দোলনের রাজনৈতিক ব্যুরোর এ সদস্য ইরানের আরবি ভাষার টেলিভিশন চ্যানেল আল-আলমকে দেয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে গতকাল (রোববার) এসব কথা বলেছেন।

আল-বুখাইতি বলেন, আগ্রাসীদের কবল থেকে দেশ পুরোপুরি মুক্ত এবং অবরোধ প্রত্যাহার না হওয়া পর্যন্ত তাদের পাল্টা অভিযান চলবে। ইয়েমেনের ভেতরে সৌদি নেতৃত্বাধীন যে সমস্ত ভাড়াটে সন্ত্রাসী তৎপর রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে যেমন অভিযান চলবে, একইভাবে বিদেশী আগ্রাসীদের বিরুদ্ধেও হামলা অব্যাহত থাকবে।

আনসারুল্লাহর এ নেতা বলেন, যেসব দেশ ইয়েমেন আগ্রাসনে জড়িত তারা তাদের বর্বরতা গোপন করার জন্য বিভিন্ন ধরনের পথ ও পদ্ধতি ব্যবহার করছে। এ ধরনের বর্বরতার ব্যাপারে প্রথমে তারা অস্বীকার করে, পরে উপায়হীন হয়ে তারা হয়তো ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার ও তদন্ত করে দেখার কথা বলে।

আবুধাবিতে ইয়েমেনের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা (১৭ জানুয়ারির ছবি)

মোহাম্মদ আল-বুখাইতি বলেন, আগ্রাসনের প্রথম তিন বছর সৌদি জোট ইয়েমেনের জনগণের ওপর সবচেয়ে বেশি বর্বরতা চালিয়েছে যখন ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন দিয়ে পাল্টা হামলা করার ক্ষমতা ইয়েমেনের ছিল না। এখন ইয়েমেনের পাল্টা হামলার কারণে আগ্রাসীরা তাদের সামরিক অভিযান কমাতে বাধ্য হয়েছে।

মোহাম্মদ আল-বুখাইতি সাক্ষাৎকারে আরো বলেন, “আমেরিকা এবং ইহুদিবাদী ইসরাইলের সাহায্য সহযোগিতা নিয়ে ইয়েমেনের জনগণের বিরুদ্ধে বর্বরতা চালাচ্ছে সৌদি আরব এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত যা নৈতিকভাবে অগ্রহণযোগ্য। ইয়েমেনকে একটি করদ রাজ্যে পরিণত করার জন্য এই বর্বরতা চালানো হচ্ছে কিন্তু আমরা তাদেরকে বলে দিতে চাই যে, এই বর্বরতার ফলাফল হবে বিপরীত কারণ আগ্রাসীদের বিরুদ্ধে আরো বহু ইয়েমেনি সেনা যুদ্ধক্ষেত্রে যুক্ত হবে।”#

পার্সটুডে/এসআইবি/২৪

ট্যাগ