মে ২৭, ২০২২ ১২:০৬ Asia/Dhaka
  • দক্ষিণ লেবানন মুক্ত করার ঘটনায় ইরান ও শহীদ সোলায়মানির ভূমিকা স্মরণ

লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর মহাসচিব সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ ইহুদিবাদী ইসরাইলের কবল থেকে দক্ষিণ লেবানন মুক্ত করার ঘটনায় ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান ও শহীদ সোলাইমানির প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

হিজবুল্লাহর প্রতিরোধ যুদ্ধের জের ধরে ২০০০ সালের ২৫ মে ইহুদিবাদী ইসরাইল ১৮ বছরের দখলারিত্বের অবসান ঘটিয়ে দক্ষিণ লেবানন থেকে সেনা প্রত্যাহার করতে বাধ্য হয়।লেবাননে দিনটি ‘প্রতিরোধ ও মুক্তি দিবস’ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে।

দক্ষিণ লেবানন মুক্ত করার ২২তম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ বৃহস্পতিবার এক ভাষণে বলেন, দেশের দক্ষিণাঞ্চল মুক্ত করতে সহযোগিতা করায় আমি ইরানের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। ইসরাইল বিরোধী প্রতিরোধ আন্দোলনে ইরান হিজবুল্লাহকে সব রকম সহযোগিতা দিয়েছে।

ইসরাইলের দখলদারিত্ব থেকে দক্ষিণ লেবানন মুক্ত করার ঘটনায় শহীদ লে. জেনারেল কাসেম সোলায়মানির অবদান স্মরণ করে হিজবুল্লাহ মহাসচিব বলেন, “২০০০ সালের বিজয় নিজেদের অজেয় দাবি করা ইসরাইলি বাহিনীর দর্পচূর্ণ করেছে, ‘বৃহৎ মধ্যপ্রাচ্য’ গঠনের কফিনে শেষ পেরেক ঠুঁকেছে এবং ফিলিস্তিন জনগণের মনে তাদের মাতৃভূমি মুক্ত করার ব্যাপারে আশাবাদ দৃঢ় করেছে।” ওই পরাজয়ের মাধ্যমে ইহুদিবাদী ইসরাইলের ধ্বংসের দীর্ঘমেয়াদি প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করন।#

পার্সটুডে/এমএমআই/২৭

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ