আগস্ট ১৮, ২০২২ ১৭:৩৭ Asia/Dhaka
  • তারিক সালমি
    তারিক সালমি

তুরস্ক ও দখলদার ইসরাইলের মধ্যে রাষ্ট্রদূত বিনিময়ের কঠোর নিন্দা জানিয়েছে ফিলিস্তিনের ইসলামি জিহাদ আন্দোলন।

আজ (বৃহস্পতিবার) ইসলামি জিহাদের মুখপাত্র তারিক সালমি এক বিবৃতিতে বলেছেন- ইসরাইলের অব্যাহত হত্যা-নির্যাতন ও দখলদারির মাঝেই রাষ্ট্রদূত বিনিময়ের এই ঘটনা ঘটলো যা দখলদারদেরকে আর বেশি অপরাধ ঘটাতে উৎসাহ যোগাবে।

তিনি আরও বলেন, ইসরাইলের সঙ্গে যেকোনো মুসলিম বা আরব দেশের যেকোনো ধরণের সম্পর্ক তা ফিলিস্তিনি জনগণের দেহে ছুরিকাঘাতের শামিল।

ইসরাইল ও তুরস্ক গতকাল আনুষ্ঠানিকভাবে দুই দেশে নিযুক্ত পরস্পরের রাষ্ট্রদূতের নাম ঘোষণা করে সম্পর্ককে পূর্ণ মাত্রায় নিয়ে গেছে।

গত মার্চ মাসে ইসরাইলি প্রেসিডেন্ট আইজ্যাক হার্জগ তুরস্ক সফরে গিয়ে প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এ সফরের মাধ্যমে আঙ্কারা ও তেল আবিবের এক দশকেরও বেশি সময়ের উত্তেজনাকর সম্পর্ক প্রশমিত হয়ে আসে।

২০১০ সালের মে মাসে অবরুদ্ধ গাজাবাসীর জন্য ত্রাণসাহায্যবাহী একটি তুর্কি জাহাজের বহরে হামলা চালিয়েছিল ইসরাইল। হামলায় বেশ কয়েকজন তুর্কি নাগরিক নিহত হন। ওই ঘটনার জের ধরে তুরস্ক ইসরাইলের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করেছিল। পরবর্তীতে সে সম্পর্ক আবার স্বাভাবিক হওয়ার পর ২০১৮ সালে ইসরাইলি হামলায় গাজা উপত্যকার ৬০ ফিলিস্তিনি নিহত হয়। সে ঘটনার জের ধরে আবার ইসরাইলি রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করে আঙ্কারা।#

পার্সটুডে/এসএ/১৮      

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ