সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২২ ১১:২০ Asia/Dhaka
  • গাজা উপত্যকাকে উন্মুক্ত কারাগারে পরিণত করে রেখেছে ইসরাইল
    গাজা উপত্যকাকে উন্মুক্ত কারাগারে পরিণত করে রেখেছে ইসরাইল

ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস বলেছে, গাজা উপত্যকার ওপর ইহুদিবাদী ইসরাইলে প্রায় দেড় দশকের অবরোধ মানবতাবিরোধী অপরাধ ছাড়া আর কিছু নয়। হামাস আজ গাজায় প্রকাশিত এক বিবৃতিতে এ মন্তব্য করেছে।

হামাসের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ১৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে গাজার ওপর কঠোর অবরোধ আরোপ করে রাখা, এই উপত্যকায় সামরিক আগ্রাসন, গাজার ক্রসিংগুলো বন্ধ করে দেয়া এবং এখানকার অধিবাসীদের জন্য খাদ্য ও ওষুধের মতো জরুরি সেবা বন্ধ করে রেখে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন ও মানবতাবিরোধী অপরাধ করেছে ইসরাইল।তেল আবিবের এসব পদক্ষেপের ফলে গাজা উপত্যকার লাখ লাখ নিরপরাধ মানুষের জীবন ও জীবিকা বিপন্ন হয়েছে।

অবরোধের মধ্যেই গাজা উপত্যকায় আগ্রাসন চালিয়ে এভাবে সবকিছু ধ্বংসস্তুপে পরিণত করে দেয় ইসরাইল

সম্প্রতি জাতিসংঘের একটি প্রতিবেদনে গাজার জনসংখ্যার উপর অবরোধের ফলে যে বিশাল ক্ষতি হয়েছে তা প্রকাশ পেয়েছে। গত ৩০ জুন জাতিসংঘের মানবিক বিষয়ক সমন্বয়ের অফিস (ওসিএইচএ) প্রতিবেদনটি প্রকাশ করেছে।

জাতিসংঘের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফিলিস্তিনের এই বিচ্ছিন্ন ভূখণ্ডে প্রায় ২১ লাখ ফিলিস্তিনি ‘অবরুদ্ধ’ রয়েছে, যার সংখ্যাগরিষ্ঠ অংশ অবশিষ্ট ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড এবং বহির্বিশ্বের বাকি অংশে প্রবেশ করতে অক্ষম। এতে আরো বলা হয়েছে, বিগত বছরগুলোতে বহু ফিলিস্তিনি রোগী গাজার বাইরে ভ্রমণ করার অনুমতি না পেয়ে বিনা চিকিৎসায় মারা গেছে।  ২০০৭ সাল থেকে গাজা উপত্যকার ওপর ইসরাইলি অবরোধ এই ভূখণ্ডকে একটি উন্মুক্ত কারাগারে পরিণত করে রেখেছে।#

পার্সটুডে/এমএমআই/১৩

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ