ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২০ ১৫:১৪ Asia/Dhaka
  • তারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ মুহাম্মদ বিন আব্দুর রহমান বিন জাসিম আলে সানি
    তারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ মুহাম্মদ বিন আব্দুর রহমান বিন জাসিম আলে সানি

কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ মুহাম্মদ বিন আব্দুর রহমান বিন জাসিম আলে সানি বলেছেন, সৌদি আরব এবং তার দেশের মধ্যে আঞ্চলিক তিক্ত দ্বন্দ্ব মীমাংসার জন্য যে আলোচনা চলছিল তা তেমন কোনো অগ্রগতি ছাড়াই জানুয়ারি মাসে স্থগিত হয়ে গেছে।

গতকাল (শনিবার) জার্মানির মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে দেয়া বক্তৃতায় তিনি একথা জানান। আব্দুর রহমান বিন আলে সানি বলেন, “চলমান সংকটের প্রায় তিন বছর হয়ে গেছে এবং আমরা কোনো অপরাধ করি নি কিন্তু তারপরও দুর্ভাগ্যজনকভাবে সমস্যার সমাধান হয় নি। অথচ আমরা সংকট সমাধানের ব্যাপারে খুবই উন্মুক্ত অবস্থান গ্রহণ করেছিলাম।” তিনি বলেন, আলোচনা স্থগিত হয়ে যাওয়ার ব্যাপারে কাতার কোনভাবেই দায়ী নয়। গত অক্টোবর মাসে সৌদি আরবের সঙ্গে কাতারের আলোচনা শুরু হয়।

২০১৭ সালের ৫ জুন সৌদি আরব, মিশর, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং বাহরাইন সম্মিলিতভাবে কাতারের ওপর সর্বাত্মক অবরোধ আরাপ করে এবং এ নিয়ে কাতারের সঙ্গে সৌদি নেতৃত্বাধীন দেশগুলোর মারাত্মক রকমের তিক্ততা সৃষ্টি হয়।

সৌদি আরব ও তার মিত্ররা কাতারের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদে সমর্থন দেয়ার অভিযোগ করে আসছিল যা জোরালো ভাষায় প্রত্যাখ্যান করেছে দোহা। এসব দেশ দাবি করেছিল যে, ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সঙ্গে কাতারের সম্পর্ক ছিন্ন করতে হবে এবং কাতারে তুরস্কের সামরিক ঘাঁটি বন্ধ করে দিতে হবে। দোহা এসমস্ত দাবি সরাসরি নাকচ করে দিয়েছে। কাতার সরকার বলেছে, “আমরা কার সঙ্গে সম্পর্ক রাখব আর কোন দেশের ঘাঁটি কাতারে থাকবে সেটি দোহা স্বাধীনভাবে সিদ্ধান্ত নেবে, কারো চাপিয়ে দেয়া সিদ্ধান্ত আমরা গ্রহণ করব না।”#

পার্সটুডে/এসআইবি/১৬

ট্যাগ

মন্তব্য