ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০ ১৫:৩১ Asia/Dhaka
  • সরকারি বাহিনীর বিজয়োল্লাস
    সরকারি বাহিনীর বিজয়োল্লাস

নজিরবিহীন সফলতার মধ্যদিয়ে সিরিয়ার সরকারি বাহিনী উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় আলেপ্পো প্রদেশের বেশিরভাগ শহর ও গ্রাম নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিতে সক্ষম হয়েছে। ইদলিব ও আলেপ্পোর প্রদেশের পরিস্থিতি নিয়ে যখন তুরস্ক এবং রাশিয়া আলোচনায় বসতে যাচ্ছে তার আগ মুহূর্তে সিরিয় বাহিনী এসব এলাকা নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিল।

ইরানের ইংরেজি ভাষার টেলিভিশন প্রেস টিভি জানিয়েছে, নিয়ন্ত্রণে আনা পুরো এলাকায় সিরিয়ার সরকারি বাহিনী সার্বভৌমত্ব প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হয়েছে। সিরিয়ার সেনারা এসব এলাকা মুক্ত করার আগে সেখানে রাশিয়ার বিমানবাহিনী সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর ওপরে ব্যাপকভাবে হামলা চালায়। আজ (সোমবার) রাশিয়া ও তুরস্কের মধ্যে আলোচনা হতে পারে।

আলেপ্পো এলাকায় সরকারি বাহিনীর সফলায় উৎফুল্ল জনতার সমাবেশ

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, রাশিয়া ও সিরিয়ার সেনাদের যৌথ প্রচেষ্টায় তুর্কি সীমান্তবর্তী আনাদান এবং হারিতান শহর দুটি মুক্ত হয়েছে। ব্রিটেনভিত্তিক কথিত মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস জানিয়েছে, ওই এলাকায় সিরিয়ার সরকারি সেনারা অত্যন্ত দ্রুতগতিতে এগিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সানা জানিয়েছে, ২০১২ সালের পর এই প্রথমবারের মতো সরকারি বাহিনী আলেপ্পো প্রদেশের রাজধানীর আশপাশের সমস্ত এলাকায় পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হয়েছে। এসব এলাকা থেকে হায়াতে তাহরির আশ-শাম ও আল কায়েদা সন্ত্রাসীরা পালাতে বাধ্য হয়েছে। সানা বলছে, আলেপ্পো শহরের পশ্চিমে মোট ২৩টি গ্রাম মুক্ত করতে সক্ষম হয়েছে সিরিয়ার সেনারা। এসব গ্রাম থেকেই সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলো আল্লাপ্পোর ওপর গোলা বর্ষণ করে আসছিল। আলেপ্পো হচ্ছে সিরিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর।#

পার্সটুডে/এসআইবি/১৭

ট্যাগ

মন্তব্য