মার্চ ০১, ২০২১ ০৮:৩৯ Asia/Dhaka
  • ইয়েমেনের সশস্ত্র বাহিনীর মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইয়াহিদা সারি
    ইয়েমেনের সশস্ত্র বাহিনীর মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইয়াহিদা সারি

ইয়েমেনের সেনাবাহিনী দাবি করেছে, তারা আগ্রাসী সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদের একাধিক ‘স্পর্শকাতর’ অবস্থানে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন দিয়ে হামলা চালিয়েছে।

ইয়েমেনের সশস্ত্র বাহিনীর মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইয়াহিদা সারি রোববার সানায় এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, শনিবার রাত থেকে এ হামলা শুরু হয় এবং রোববার ভোর পর্যন্ত তা অব্যাহত থাকে। হামলার সাংকেতিক নাম ছিল ‘দ্যা ফিফথ অপারেশন অব ব্যালান্সড ডিটারেন্স’। জেনারেল সারি বলেন, ইয়েমেনের ওপর সৌদি আরবের গত ছয় বছরের আগ্রাসনের জবাব দিতে আকাশপথে এসব হামলা চালানো হয়।

একটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পাশাপাশি নয়টি পাইলটবিহীন বিমান বা ড্রোনকে হামলার কাজে ব্যবহার করা হয়। জেনারেল সারি ক্ষেপণাস্ত্রটিকে ‘জুলফাকার’ শ্রেণির ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র এবং ড্রোনগুলোকে ‘সামাদ-৩’ শ্রেণির  ইউএভি বলে উল্লেখ করেন।

ইয়েমেনের সেনা মুখপাত্র বলেন, “শত্রু সেনাদের রাজধানী শহর রিয়াদের স্পর্শকাতর অবস্থানগুলোকে টার্গেট করে এ হামলা চালানো হয়।”তিনি জানান, সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলীয় আসির প্রদেশের আবহা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ও খামিস মুশাইত এলাকায় আরো ছয়টি ড্রোন দিয়ে হামলা চালানো হয়। ড্রোনগুলো নিখুঁতভাবে নির্ধারিত লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানে বলে তিনি জানান। জেনারেল সারি সৌদি সরকারের যেকোনো সমারিক স্থাপনা থেকে দূরে অবস্থান করার জন্য দেশটির বেসামরিক নাগরিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

ইয়েমেনের এ ঘোষণার আগে রোববার সকালে সৌদি আরবই দেশটিতে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলার কথা স্বীকার করেছিল। রিয়াদ দাবি করেছে, তারা ক্ষেপণাস্ত্রটি আকাশেই গুলি করে ভূপাতিত করেছে।#

পার্সটুডে/এমএমআই/১

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।  

 

ট্যাগ