জুলাই ১৭, ২০২১ ১৫:২৯ Asia/Dhaka
  • ইয়েমেনের হুদায়দা সমুদ্রবন্দর (ফাইল ছবি)
    ইয়েমেনের হুদায়দা সমুদ্রবন্দর (ফাইল ছবি)

সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট ও তার ভাড়াটেরা প্রতিমাসে ইয়েমেনের ৩০ থেকে ৪০ লাখ ব্যারেল তেল লুট করে নিয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে সানা। ইয়েমেনের রাষ্ট্র-নিয়ন্ত্রিত তেল কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক আম্মার আল-আজরায়ি আরবি টিভি চ্যানেল আল-মাসিরাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ অভিযোগ করেছেন।

তিনি বলেন, এই তেল বিক্রির অর্থ কোথায় যাচ্ছে তা আমাদের জানা নেই।  আজরায়ি বলেন, আগ্রাসী শাক্তি তেল ও তরল প্রাকৃতিক গ্যাস লুট করার ফলে ইয়েমেনের সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সময়মতো বেতন পরিশোধ করা সম্ভব হচ্ছে না।

তিনি বলেন, সম্প্রতি সৌদি-নেতৃত্বাধীন বাহিনী সৌদি আরবের জিযান বন্দরের কাছে ইয়েমেনের চারটি জাহাজ জব্দ করেছে। এগুলোর মধ্যে দু’টিতে ছিল পেট্রল, একটিতে কারখানায় ব্যবহৃত জ্বালানী তেল এবং অপরটিতে ছিল তরল গ্যাস।

গত ছয় বছর ধরে জল, স্থল ও আকাশপথে ইয়েমেনের ওপর কঠোর অবরোধ আরোপ করে রেখেছে সৌদি আরব। ইয়েমেনের লাখ লাখ মানুষের জীবন ও জীবিকার উৎস হুদায়দা সমুদ্রবন্দরের ওপর অবরোধ আরোপ করে রাখার কারণে দারিদ্রপীড়িত দেশটির অর্থনৈতিক দুরবস্থা চরমে পৌঁছেছে। সৌদি নেতৃত্বাধীন বাহিনী প্রায়ই ইয়েমেনের জন্য আমদানি করা তেলসহ অন্যান্য জরুরি পণ্য সামগ্রী জব্দ করে নিয়ে যায়।

ইয়েমেনের তেল কোম্পানির প্রধানের ভাষ্য অনুযায়ী, দেশটির তেল সম্পদ লুটপাটের কারণে গত কয়েক মাসে দেশটিতে ভয়াবহ জ্বালানী সংকট দেখা দিয়েছে। জাতিসংঘ বলেছে, ইয়েমেনের ওপর থেকে অবরোধ প্রত্যাহার ও দেশটির ওপর আগ্রাসন বন্ধ না হলে সেখানে ভয়াবহ মানবিক সংকট দেখা দেবে।#

পার্সটুডে/এমএমআই/১৭

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ