ডিসেম্বর ০২, ২০২১ ১৩:২০ Asia/Dhaka
  • রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ
    রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ

আমেরিকা বিশ্বের বিভিন্ন দেশকে আমন্ত্রণ জানিয়ে যে গণতন্ত্র সম্মেলন অনুষ্ঠান করতে যাচ্ছে তাকে বিশ্বের অন্যতম ঘৃণ্য প্রকল্প বলে অভিহিত করেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আগামী ৯ ও ১০ ডিসেম্বর ভার্চুয়ালি এই গণতন্ত্র সম্মেলন অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা করেছেন। সম্মেলনে বিশ্বের ১১০ দেশকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে তবে তার মধ্যে রাশিয়া, চীন ও তুরস্কের মতো দেশ নেই।

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ গতকাল (বুধবার) এক বিবৃতিতে বলেন, বাইডেন প্রশাসন সম্পূর্ণ তাদের নিজেদের বিচার-বুদ্ধি মতো সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, কোন দেশকে তারা আমন্ত্রণ জানাবে আর কোন দেশকে জানাবে না। তবে আমেরিকার এই উদ্যোগ চলমান বিশ্ব ব্যবস্থার আওতায় অন্যতম প্রধান ঘৃণ্য প্রকল্প।

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, এটি নিশ্চিত যে, আমেরিকা বিশ্বকে বিভক্ত করার জন্য কাজ করছে; এবার কথিত গণতন্ত্র সম্মেলনের নামে কিছু দেশকে আমন্ত্রণ জানিয়ে এবং কিছু দেশকে বাদ দিয়ে সে বিভক্তিকরণ প্রক্রিয়া আনুষ্ঠানিকতা পেল।

সের্গেই ল্যাভরভ বলেন, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ফলাফলের ভিত্তিতে জাতিসংঘ কেন্দ্রিক কিছু নিয়মকানুন প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল তাকে ধ্বংস করে দিয়েছে আমেরিকা এবং পশ্চিমা কিছু দেশ। তারা এখন চেষ্টা করছে জাতিসংঘের নিয়ম-নীতির বদলে নতুন নিয়ম নীতি প্রতিষ্ঠা করতে যা থেকে শুধুমাত্র তারাই লাভবান হবে।

ল্যাভরভের এই বিবৃতির আগে গত শনিবার চীন এবং রাশিয়া যৌথভাবে মার্কিন গণতন্ত্র সম্মেলনের নিন্দা জানিয়ে বলেছে, স্নায়ু যুদ্ধকালীন মানসিকতার ফসল হচ্ছে এই গণতন্ত্র সম্মেলন এবং এর মাধ্যমে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে বিভক্ত করা হবে।#

পার্সটুডে/এসআইবি/২

ট্যাগ