এপ্রিল ০৬, ২০২২ ০৭:৫৩ Asia/Dhaka
  • রাশিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট ও জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের উপ সচিব দিমিত্রি মেদভেদেভ
    রাশিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট ও জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের উপ সচিব দিমিত্রি মেদভেদেভ

ইউক্রেনের বুচা শহরে রুশ সেনারা যুদ্ধাপরাধ করেছে বলে কিয়েভ যে অভিযোগ করেছে তাকে মস্কো-বিরোধী প্রচারণা বলে আবারও নাকচ করে দিয়েছে রাশিয়া। মস্কো বলেছে, রাশিয়ার ভাবমর্যাদা ক্ষুণ্ন রকার জন্য ইউক্রেনের বিশেষ বাহিনী পশ্চিমা মদদে এই ভুয়া প্রচারণা চালাচ্ছে।

রাশিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট ও জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের উপ সচিব দিমিত্রি মেদভেদেভ বলেছেন, “ইউক্রেনের প্রচারণাগত কল্পনার জগতে এসব ভুয়া খবর উৎপন্ন হয়েছে।”

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ওই মন্ত্রণালয়ের হাতে এমন সব দলিল রয়েছে যা দিয়ে প্রমাণ করা যায়, ইউক্রেনের বিশেষ একটি বাহিনী রাজধানী কিয়েভ থেকে ২৩ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত কয়েকটি শহরকে এ ধরনের প্রচারণার স্থান হিসেবে ব্যবহার করেছে।

বুচা শহরের কথিত এসব লাশের ছবি ৩ এপ্রিল প্রকাশ করা হয়

দিমিত্রি মেদভেদেভ তার বক্তব্যে প্রশ্ন করেন, রুশ সেনারা যদি ৩০ মার্চ বুচা শহর থেকে পশ্চাদপসরণ করে থাকে এবং ওই শহরের মেয়র ৩১ মার্চ শহরটিকে রুশ সেনামুক্ত হিসেবে ঘোষণা করে থাকেন, তাহলে কথিত নিহত বেসামরিক নাগরিকদের লাশ কেন প্রথমবারের মতো ৩ এপ্রিল প্রদর্শন করা হলো? তিনি আরো বলেন, প্রচারিত ভিডিও দেখে এমন কোনো আলামত পাওয়া যায় না যে, এসব লাশ কয়েকদিনের পুরনো বরং ছবিতে নিহত ব্যক্তিদেরকে তাৎক্ষণিকভাবে হত্যা করা হয়েছে বলেই মনে হয়।

মেদভেদেভ আরো বলেন, বিভিন্ন পশ্চিমা কোম্পানি ও বেসরকারি সংস্থাকে দিয়ে এসব ভুয়া লাশ তৈরি করা হয়েছে।এমনকি ইউক্রেনের সেনারা রাশিয়ার ভাবমর্যাদা ক্ষুণ্ন করার জন্য নিজ দেশের নাগরিকদের হত্যা করতেও কুণ্ঠিত হচ্ছে না।

এর আগে রুশ সেনারা বুচায় গণহত্যা চালিয়েছে বলে যে অভিযোগ করা হয়েছে তা খতিয়ে দেখার জন্য রাশিয়ার প্রধান তদন্তকারীর দপ্তর থেকে একটি স্বতন্ত্র তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।#

পার্সটুডে/এমএমআই/৬

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ