এপ্রিল ২৫, ২০২২ ০৫:৫০ Asia/Dhaka
  • তেহরানস্থ রুশ দূতাবাস
    তেহরানস্থ রুশ দূতাবাস

ইউক্রেনে চলমান ‘বিশেষ সামরিক অভিযানে’ ইরানি অস্ত্র ব্যবহারের দাবি নাকচ করে দিয়েছে রাশিয়া। তেহরানস্থ রুশ দূতাবাস গতকাল (রোববার) এক টুইটার বার্তায় কিছু পশ্চিমা গণমাধ্যমে প্রচারিত এ সংক্রান্ত ‘ভুয়া’ খবর প্রত্যাখ্যান করেছে।

রুশ দূতাবাসের টুইটার বার্তায় বলা হয়, “কিছু গণমাধ্যমে রাশিয়ায় ইরানি অস্ত্র সরবরাহের যে খবর প্রকাশিত হয়েছে তা ভুয়া এবং বাস্তবতার সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ নয়।”

গত ১২ এপ্রিল ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান দাবি করে, ইউক্রেনের বিরুদ্ধে অভিযানে রাশিয়া ইরানের আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ব্যবহার করছে। পত্রিকাটির বরাত দিয়ে বিশ্বের আরো বহু গণমাধ্যম খবরটি প্রচার করে।

ইরানে তৈরি বভার-৩৭৩ আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা

গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়, চোরাচালানের মাধ্যমে ইরাক থেকে এসব অস্ত্র ও সামরিক হার্ডওয়্যার নিচ্ছে রাশিয়া। ব্রিটিশ দৈনিকটি দাবি করে, ফেব্রুয়ারি মাসে ইউক্রেনে মস্কোর সমরাস্ত্র ঠিকভাবে কাজ না করায় ইরানি  আরপিজি, অ্যান্টি ট্যাঙ্ক ক্ষেপণাস্ত্র ও সেইসাথে ব্রাজিলের ডিজাইন করা রকেট লঞ্চার সিস্টেম ইরাক থেকে রাশিয়ায় পাঠানো হয়েছে।

গার্ডিয়ান দাবি করে, ইরানের তৈরি আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ‘বভার-৩৭৩ ‘যেটি রাশিয়ার এস-৩০০’র মতো সেটি মস্কোকে দিয়েছে তেহরান কর্তৃপক্ষ।

তবে ব্রিটিশ পত্রিকাটির দাবি উড়িয়ে দিয়ে লন্ডনস্থ ইরান দূতাবাস তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছিল, গার্ডিয়ানে প্রকাশিত প্রতিবেদনটি কল্পকাহিনীনির্ভর, ভিত্তিহীন ও অবাস্তব। মধ্যপ্রাচ্যের ঘটনাগুলোর সঙ্গে ইউক্রেনের বর্তমান অবস্থার যোগসূত্র ঘটিয়ে সম্পূর্ণ অপেশাদার আচরণ করেছে গার্ডিয়ান। পত্রিকাটিতে প্রতিবাদমূলক বার্তাও পাঠায় লন্ডনের ইরান দূতাবাস।এরপর তেহরানস্থ রুশ দূতাবাস ব্রিটিশ পত্রিকার খবর প্রত্যাখ্যান করল।#

পার্সটুডে/এমএমআই/২৫

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ