মে ২৪, ২০২২ ১৮:৪৩ Asia/Dhaka
  • বাইডেন
    বাইডেন

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তাইওয়ান ইস্যুতে দেওয়া গতকালের বক্তব্য থেকে আজ (মঙ্গলবার) সরে এসেছেন। গতকাল তিনি বলেছিলেন, তাইওয়ানকে রক্ষায় প্রয়োজনে চীনের বিরুদ্ধে সামরিক পন্থা বেছে নেবে ওয়াশিংটন।

এরপর আজ (মঙ্গলবার) টোকিওতে চারটি দেশের জোট কোয়াডের বৈঠকের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, তাইওয়ান নিয়ে মার্কিন অবস্থানে কোনোরকম রদবদল ঘটেনি।

গতকাল জো বাইডেন যুদ্ধের হুমকি দেওয়ার পরপরই চীন কঠোর ভাষায় এর সমালোচনা করে বলেছে, চীনের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার অধিকার কারো নেই এবং কেউ তা করতে চাইলে বেইজিং এর কড়া জবাব দেবে।

১৯৭০–এর দশকের শুরুতে চীনের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করে নেওয়ার পর মার্কিন প্রশাসন তাইওয়ানকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে দেওয়া স্বীকৃতি প্রত্যাহার করে নেয়। তারা একচীন নীতি মেনে চলবে বলে প্রতিশ্রুতি দেয়।

মার্কিন সরকার এখনও বলছে, তারা একচীন নীতি মেনে চলতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। একচীন নীতি মেনে নিলে তাইওয়ানকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে গণ্য করার কোনো উপায় নেই। কিন্তু গতকাল মার্কিন প্রেসিডেন্ট আচমকা বলে বসেন, তাইওয়ানের স্বাধীন অস্তিত্ব হুমকির মুখে পড়লে সামরিক পদক্ষেপ গ্রহণ করা থেকে যুক্তরাষ্ট্র বিরত থাকবে না। প্রয়োজনে অস্ত্র ব্যবহার করবে।

এর মধ্যদিয়ে চীনের বিরুদ্ধে আমেরিকার যুদ্ধপ্রস্তুতিরই ইঙ্গিত দেন বাইডেন। কিন্তু কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে আজ তিনি নিজের আগের বক্তব্য পাল্টে ফেলেন। এর আগেও তাকে এমন ডিগবাজি দিতে দেখা গেছে।#

পার্সটুডে/এসএ/২৪

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ