জুন ০৮, ২০২২ ১৮:১৪ Asia/Dhaka
  • রাশিয়া থেকে তেল নিয়ে মার্কিন বন্দরের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়েছে আমেরিকার একটি জাহাজ
    রাশিয়া থেকে তেল নিয়ে মার্কিন বন্দরের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়েছে আমেরিকার একটি জাহাজ

রাশিয়ার তেলের ওপর একদিকে আমেরিকা নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে অন্যদিকে রাশিয়ার কাছ থেকেই আবার ওয়াশিংটন তেল কিনছে। আমেরিকার এই অবস্থানকে কপটতা বা মোনাফেকি বলে মন্তব্য করেছেন রাশিয়ার জাতীয় সংসদের নিম্ন কক্ষ দুমার স্পিকার ভিয়াচেস্লাভের ভলোদিন।

রাশিয়ার অপরিশোধিত তেল ও তেলজাতীয় পণ্য, তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস এবং কয়লা আমদানির  ওপর মার্চ মাসের প্রথমদিকে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে আমেরিকা। সেসময় আমেরিকা বলেছিল, রাশিয়ার কোনো তেল আমেরিকার বন্দরে গ্রহণযোগ্য হবে না।

মার্কিন জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের সরবরাহ করা তথ্য থেকে দেখা যায়, গত ফেব্রুয়ারি মাসের তুলনায় মার্চ মাসে রাশিয়া থেকে আমেরিকা তেল কেনা প্রায় দ্বিগুণ করেছে। ফেব্রুয়ারি মাসে যেখানে রাশিয়ার কাছ থেকে আমেরিকা ২,৩২৫ মিলিয়ন ব্যারেল তেল কিনেছিল সেখানে মার্চ মাসে দেশটি তেল কিনেছে ৪২১৮ মিলিয়ন ব্যারেল।

ভিয়াচেস্লাভ বলেন, আগে রাশিয়া আমেরিকার নবম বৃহত তেল সরবরাহকারী দেশ ছিল এখন ষষ্ঠ বৃহত তেল ও সরবরাহকারী দেশে পরিণত হয়েছে।

দুমার স্পিকার আরো বলেন, আমেরিকা নিজেই যেখানে রাশিয়ার কাছ থেকে তেল কিনছে সেখানে তারা ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোকে রাশিয়া থেকে তেল আমদানি বন্ধের জন্য চাপ সৃষ্টি করছে। এটি সুস্পষ্টভাবে আমেরিকার দ্বিমুখী চরিত্র পরিষ্কার করে।#

পার্সটুডে/এসআইবি/৮

ট্যাগ