জুন ২৫, ২০২২ ০৬:৫২ Asia/Dhaka
  • আমেরিকার সর্বোচ্চ আদালত
    আমেরিকার সর্বোচ্চ আদালত

অবশেষে গর্ভপাত অধিকার আইন বাতিল করেছে আমেরিকার সর্বোচ্চ আদালত। প্রায় পাঁচ দশকের পুরনো একটি আইনি সিদ্ধান্ত বাতিল করে দেয়ার ফলে আমেরিকায় আবার গর্ভপাত নিষিদ্ধ হতে যাচ্ছে। এর ফলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের লাখ লাখ নারী আর আইনি সুরক্ষায় থেকে তাদের গর্ভের ভ্রুণ হত্যার মতো জঘন্য অপরাধ করতে পারবেন না।

স্থানীয় সময় গতকাল (শুক্রবার) দেশটির সুপ্রিম কোর্ট গর্ভপাতকে বৈধতা দেওয়া প্রায় ৫০ বছরের পুরোনো একটি আইনি সিদ্ধান্ত উল্টে দিয়ে ভ্রুণ হত্যাকে নিষিদ্ধ করে দিয়েছে। এই রায়ের ফলে আমেরিকার প্রায় অর্ধেক রাজ্যেই গর্ভপাত নিষিদ্ধ হওয়ার ক্ষেত্র প্রস্তুত হলো। প্রতিটি রাজ্যই এখন নিজস্বভাবে গর্ভপাত নিষিদ্ধ করার পদক্ষেপ নিতে পারবে।

আদালতের সামনেই বিবাদে জড়িয়ে পড়েন ভ্রুণ হত্যার পক্ষের ও বিপক্ষের নারীরা

এর আগে গত মাসের শুরুর দিকে মার্কিন সুপ্রিম কোর্টে রক্ষিত একটি গোপন খসড়া নথি ফাঁস হয়। তাতে বলা হয়, মার্কিন সুপ্রিম কোর্ট গর্ভপাতের আইনি অধিকারকে বাতিল করতে যাচ্ছে। এই খবর প্রকাশিত হওয়ার পর সুপ্রিম কোর্টের সামনে গর্ভপাতের অধিকার রক্ষার পক্ষে মিছিল করেন একদল নারী। এরপর আদালতের রায়ের পক্ষে অবস্থান নিয়ে ভ্রুণ হত্যার প্রতিবাদ জানাতে রাস্তায় নামেন অপর একদল নারী।

৯৮ পৃষ্ঠার খসড়া নথিতে বিচারক স্যামুয়েল আলিতো লিখেছেন, ১৯৭৩ সালের ‘রো বনাম ওয়েডের’ মামলার সিদ্ধান্তে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে গর্ভপাতকে বৈধ করাটা বিরাট ভুল ছিল।  এই আইন বাতিল হওয়ায় দেশটিতে কয়েক দশক ধরে চলে আসা রক্ষণশীল আন্দোলনের বড় ধরনের বিজয় হিসেবে বিবেচিত হলো।# 

পার্সটুডে/এমএমআই/২৫

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ