জুন ২৯, ২০২২ ১৪:৩৬ Asia/Dhaka
  • দিমিত্রি পলিয়ানস্কি
    দিমিত্রি পলিয়ানস্কি

জাতিসংঘে নিযুক্ত রাশিয়ার উপ রাষ্ট্রদূত দিমিত্রি পলিয়ানস্কি বলেছেন, ইউক্রেনের ক্রেমেনচুগ শহরের শপিংমলে রুশ সেনারা হামলা করে নি এবং তারা বেসামরিক লোকজনকে লক্ষ্য করে হামলা চালাচ্ছে না।

তিনি বলেন, পশ্চিমাদের সরবরাহ করা অস্ত্র ও গোলাবারুদের বিস্ফোরণের কারণে শপিংমলে আগুন ধরে গেছে এবং এসব অস্ত্র ও গুলাবারুদ ওই শপিংমলের কাছে একটি ফ্যাক্টরিতে রাখা ছিল। এইসব অস্ত্র ও গোলাবারুদ দোনবাসের বেসামরিক জনগণের ওপর ব্যবহারের জন্য জমা করা হয়েছিল। ফলে ওই অস্ত্র রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর জন্য বৈধ লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হয়।

পলিয়ানস্কি রাশিয়ার বিরুদ্ধে প্রচারণাযুদ্ধ পরিচালনার জন্য ইউক্রেনকে অভিযুক্ত করেন। তিনি বলেন, ইউক্রেনের সেনাদেরকে আবাসিক এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে এবং তারা বেসামরিক লোকজনকে মানবঢাল হিসেবে ব্যবহার করছে।

নিরাপত্তা পরিষদের গতকালের বৈঠকে পশ্চিমা কূটনীতিকদের সঙ্গে অন্য একটি বিষয়েও বিরোধে জড়িয়ে পড়েন পলিয়ানস্কি। নিরাপত্তা পরিষদের প্রটোকল ভেঙে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলদিমির জেলেনস্কিকে ভিডিও লিংকের মাধ্যমে বক্তৃতা করার সুযোগ দেয়া হয়। এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে রুশ কূটনীতিক বলেন, মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্রের প্রেসিডেন্ট এভাবেই নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে বক্তব্য দিতে চাইলেও তাকে সেই সুযোগ দেয়া হয়নি। অথচ এখন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টকে বক্তব্য রাখার সুযোগ দেয়া হচ্ছে।

গতকাল নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে ভিডিও লিংকের মাধ্যমে দেয়া বক্তৃতায় ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি বলেন, রাশিয়া হচ্ছে সন্ত্রাসী ও মানবতাবিরোধী রাষ্ট্র, তাকে জাতিসংঘ থেকে বহিষ্কার করতে হবে।#

পার্সটুডে/এসআইবি/২৯

ট্যাগ