সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২২ ১৯:৫৫ Asia/Dhaka
  • যৌথ মহড়ায় অংশ নেয়া সেনাদের একাংশ
    যৌথ মহড়ায় অংশ নেয়া সেনাদের একাংশ

আমেরিকা এবং দক্ষিণ কোরিয়া চার দিনব্যাপী যৌথ নৌ মহড়া শুরু করেছে। গত পাঁচ বছরের মধ্যে এই প্রথম এই ধরনের মহড়া চালাচ্ছে দেশ দুটি। এর একদিন আগে উত্তর কোরিয়া ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার যুদ্ধবাজ প্রেসিডেন্ট ইউন সুক ইউয়োল গত মে মাসে ক্ষমতায় আসার পর আমেরিকার সঙ্গে সর্বোচ্চ সামরিক সহযোগিতা বাড়ানোর অঙ্গীকার করেন। এরপর এই মহড়া অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

মহড়া শুরুর পরপরই দক্ষিণ কোরিয়ার নৌ বাহিনী এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, “উত্তর কোরিয়ার উসকানির মুখে এই মহড়া দক্ষিণ কোরিয়া ও আমেরিকার মধ্যকার সম্পর্ক জোরদার করবে। যৌথভাবে উত্তর কোরিয়াকে মোকাবেলার বিষয়ে দুই দেশের জোরালো ইচ্ছা ফুটে উঠেছে এই মহড়ার মধ্যে। যৌথ মহড়ার মাধ্যমে আমরা দুই দেশের নৌ বাহিনীকে যৌথ অভিযান পরিচালনার জন্য আরো বেশি সক্ষম করে তুলবো।”

দক্ষিণ কোরিয়ার নৌবাহিনী জানিয়েছে চারদিনের এই মহড়ায় ২০টির বেশি যুদ্ধজাহাজ অংশ নেবে এবং বেশ কিছু বিমান যুক্ত হবে। মহড়ান  ভেতরে যুদ্ধজাহাজ এবং সাবমেরিন বিধ্বংসী অভিযান পরিচালনা করা হবে।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট আমেরিকার সঙ্গে যৌথ মহড়া অব্যাহত রাখার ঘোষণা  দিয়েছেন। দক্ষিণ কোরিয়ায় আমেরিকার ২৮ হাজার ৫০০ সেনা মোতায়েন রয়েছে।#

পার্সটুডে/এসআইবি/২৬

ট্যাগ