অক্টোবর ০২, ২০২২ ১৮:১২ Asia/Dhaka
  • তিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী
    তিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী

চীনকে ঠেকাতে নিজেদের মধ্যে সামরিক সহযোগিতা আরও বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া এবং জাপান। প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে মার্কিন সেনাঘাঁটিতে বসে এই তিন দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রী এ  বিষয়ে এক যৌথ বিবৃতি দিয়েছেন।

মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন দাবি করেছেন, চীন আগ্রাসী তৎপরতা চালাচ্ছে এবং এই তৎপরতা ক্রমেই বাড়ছে। গতকাল শনিবার তিনি বলেন, ‘তাইওয়ান প্রণালি এবং এই অঞ্চলে চীনের ক্রমবর্ধমান আগ্রাসী আচরণে আমরা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন।’

অস্ট্রেলিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী রিচার্ড মারলেস দাবি করেছেন, চীন তার চারপাশের বিশ্বকে এমন রূপ দিতে চাইছে, যা এর আগে দেখা যায়নি।

এই অঞ্চলে চীনা প্রভাব মোকাবিলায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ইতিমধ্যে কূটনৈতিক প্রচেষ্টা জোরদার করেছে। এর প্রেক্ষিতে গত বৃহস্পতিবার ওয়াশিংটন প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপদেশগুলোর জন্য ৮১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার সহায়তা প্যাকেজ ঘোষণা করেছে। এই অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্র তার কূটনৈতিক উপস্থিতি জোরদারের পরিকল্পনার অংশ হিসেবে এমন পদক্ষেপ নিয়েছে। এর অংশ হিসেবে সম্প্রতি জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়া সফর করে গেছেন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস।

তাইওয়ান ইস্যুতে চীন ও আমেরিকার মধ্যে উত্তেজনা আগের চেয়ে বেড়েছে। তাইওয়ানকে নিজের অবিচ্ছেদ্য ভূখণ্ড হিসেবে গণ্য করে চীন। কিন্তু আমেরিকা তাইওয়ানকে অস্ত্রসহ নানা সাহায্য দিয়ে বিচ্ছিন্নতার জন্য উসকানি দিচ্ছে বলে বেইজিং অভিযোগ করে আসছে।#

পার্সটুডে/এসএ/২

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ