নভেম্বর ২২, ২০২২ ১৯:৩৪ Asia/Dhaka
  • সীমান্ত সংঘাত
    সীমান্ত সংঘাত

সীমান্ত সংঘাত বন্ধে পাকিস্তান-আফগানিস্তান আলোচনা ফলাফলশূন্যভাবে শেষ হয়েছে। আফগানিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় পাকতিয়া প্রদেশের দান্দপাতান সীমান্তে সংঘাত বন্ধ করার লক্ষ্যে তালেবানদের আলোচক দল পাকিস্তানি পক্ষের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিল।

আফগানিস্তানের পাকতিয়া প্রদেশের সীমান্ত সংঘাত তিন দিন আগে পাকিস্তানের কোরাম এজেন্সি এলাকার অধিবাসীদের পক্ষ থেকে শুরু হয়েছিল। ওই সংঘাত শেষ পর্যন্ত তালেবান বাহিনী এবং পাকিস্তানি বাহিনীর মধ্যে সশস্ত্র পর্যায়ে পৌঁছায়। উভয় পক্ষ দান্দপাতান সীমান্ত এলাকায় পরস্পরের বিরুদ্ধে অস্ত্র ব্যবহার করে।

গত বছরের ১৫ আগস্ট আফগানিস্তানে তালেবান ক্ষমতায় আসার পর থেকে আফগানিস্তান ও পাকিস্তানের মধ্যে সীমান্ত সংঘাত তীব্রতর হয়।  প্রতিবারই দুই দেশ একে অপরকে সংঘাত শুরু করার জন্য অভিযুক্ত করে আসছে।

বার্তা সংস্থা তাসনিম জানিয়েছে তালেবান সরকারের স্থানীয় কর্মকর্তারা সংঘাত বন্ধ করার জন্য পাকিস্তানি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছে। বৈঠকে অংশ নেওয়া পাকিস্তান অঞ্চলের একজন স্থানীয় ভদ্রলোক আলোচনা সম্পর্কে বলেছেন: উভয় পক্ষের মধ্যে মতপার্থক্যের কারণে আলোচনায় কোনো ফল হয় নি। এ কারণে তিনি সীমান্তে সংঘাত অব্যাহত থাকতে পারে বলে আশংকা প্রকাশ করেছেন।

পাকিস্তানের কোরাম এজেন্সি অঞ্চলের স্থানীয় লোকজনের দাবি হলো, ডুরান্ড নামে পরিচিত সীমান্তরেখা বরাবর কাঁটাতার স্থাপন করায় তাদের শত শত হেক্টর জমি আফগান ভূখণ্ডে থেকে যায়। কিন্তু তালেবান কর্মকর্তারা তাদের এই দাবি অস্বীকার করে।

২০১৭  সালে পাকিস্তান সরকার ডুরান্ড সীমান্তরেখা বরাবর কাঁটাতার স্থাপনের কাজ শুরু করে। নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠার কথা বলে ওই কাঁটাতার স্থাপনের পরিকল্পনা তালেবান-পূর্ববর্তী আফগান সরকার মেনে নেয় নি, তারা এই পরিকল্পনার বিরোধিতা করেছিল।#

পার্সটুডে/এনএম/২২

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ