২০১৯-০৯-১৩ ১৭:৩৩ বাংলাদেশ সময়
  • রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ
    রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ

রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেছেন, সিরিয়ায় বিদেশি-মদদপুষ্ট সন্ত্রাসবাদের অবসান হয়েছে বলে তিনি মনে করছেন এবং এখন দেশটিতে দীর্ঘমেয়াদি পুনর্গঠন কাজ শুরু করা প্রয়োজন। সেইসঙ্গে সিরিয়াসহ গোটা মধ্যপ্রাচ্যের কোথাও যাতে আবার উগ্র সন্ত্রাসবাদ মাথাচারা দিয়ে উঠতে না পারে সে লক্ষ্যেও পদক্ষেপ গ্রহণ করা প্রয়োজন।

তিনি রাশিয়ার দৈনিক ‘ত্রুদ’কে দেয়া এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে বলেন, “সত্যিকার অর্থে সিরিয়ায় যুদ্ধের অবসান হয়েছে। দেশটি ধীরে ধীরে স্বাভাবিক ও শান্তিপূর্ণ জীবনযাত্রায় ফিরে যাচ্ছে। যদিও ইদলিব ও দজলা নদীর পূর্ব তীরের যেসব ছোট এলাকায় এখনো সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠিত হয়নি সেসব এলাকায় উত্তেজনা রয়ে গেছে।”

সিরিয়ার বেশিরভাগ শহরে এখন উড়ছে দেশটির জাতীয় পতাকা

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সিরিয়ায় সাংবিধানিক সংস্কার আনার আহ্বান জানিয়ে বলেন, জাতিসংঘের সহযোগিতায় সিরিয়ার জনগণ যেন নিজেরাই নিজেদের রাজনৈতিক ভাগ্য গঠন করতে পারে সে ব্যবস্থা করতে হবে। ল্যাভরভ এ লক্ষ্যে সিরিয়ার সরকার ও বিরোধী গোষ্ঠীগুলোর মধ্যে প্রয়োজনে সংলাপ আয়োজনেরও আহ্বান জানান।

ল্যাভরভ সিরিয়ার ওপর আমেরিকা ও ইউরোপীয় দেশগুলোর পক্ষ থেকে আরোপিত নিষেধাজ্ঞার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, পাশ্চাত্যের এ পদক্ষেপ উল্টো ফল বয়ে আনবে।

২০১১ সালের মার্চ মাসে সিরিয়ায় বিদেশি মদদপুষ্ট সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সেনাবাহিনীর যুদ্ধ শুরু হয়। এ যুদ্ধে গোটা পাশ্চাত্য ও বেশিরভাগ আরব দেশ সন্ত্রাসীদের পক্ষ নিলেও রাশিয়া সিরিয়া সরকারের পক্ষ নেয়। দীর্ঘ আট বছরেরও বেশি সময়ের যুদ্ধের পর দেশটির বেশিরভাগ এলাকায় বর্তমানে সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। #

পার্সটুডে/এমএমআই/১৩

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ

মন্তব্য