২০১৯-১১-০৯ ০৬:৫৮ বাংলাদেশ সময়
  • ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা পর্যবেক্ষণ করছেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন (ফাইল ছবি)
    ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা পর্যবেক্ষণ করছেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন (ফাইল ছবি)

আমেরিকার সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার সুযোগ ক্রমেই সংকুচিত হয়ে আসছে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে উত্তর কোরিয়া। পিয়ংইয়ং বলেছে, চলতি বছরের বাকি সময়ের মধ্যে আমেরিকার পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে কোনো পদক্ষেপ নেয়া না হলে আলোচনার সুযোগ চিরতরে বন্ধ হয়ে যাবে।

উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উত্তর আমেরিকা বিভাগের প্রধান চোল-সু শুক্রবার এ সতর্কবাণী উচ্চারণ করেন। তিনি বলেন, “আমরা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে যথেষ্ট সময় দিয়েছি এবং এখন তাদের পক্ষ থেকে চলতি বছরের শেষ নাগাদ কোনো জবাব পাওয়ার জন্য অপেক্ষা করছি।”

তিনি আরো বলেন, “তবে আমি একথাও স্মরণ করিয়ে দিতে চাই, আলোচনার দরজা প্রতিদিন একটু একটু করে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে।”

কিম-ট্রাম্প তিন বারের সাক্ষাত ফটোসেশন ছাড়া আর কোনো ফল বয়ে আনেনি

উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এই কর্মকর্তা বলেন, আমেরিকা কোরীয় উপদ্বীপে দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে যৌথ মহড়াসহ অন্যান্য বিদ্বেষী পদক্ষেপ অব্যাহত রেখেছে। ওয়াশিংটনের এসব আচরণ গোটা উপদ্বীপে উত্তেজনা বাড়িয়ে দিচ্ছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন ২০১৮ সালের জুন মাস থেকে এ পর্যন্ত তিন দফা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। এসব সাক্ষাত থেকে গণমাধ্যমে দুই নেতার ছবি প্রকাশ হওয়ার ছাড়া আর কোনো ফল পাওয়া যায়নি।গত ফেব্রুয়ারিতে ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয়ে কিম-ট্রাম্প বৈঠকের পর দ্বিপক্ষীয় আলোচনায় অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়।আমেরিকা উত্তর কোরিয়াকে তার পরমাণু কর্মসূচি পুরোপুরি বন্ধ করার আহ্বান জানিয়ে বলেছে, এ কর্মসূচি বন্ধ করার আগে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হবে না। অন্যদিকে পিয়ংইয়ং বলছে, নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার না করা পর্যন্ত দেশটি তার পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচি বন্ধ করবে না।#

পার্সটুডে/এমএমআই/৯

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ

মন্তব্য