২০১৯-১১-১১ ১১:৩৫ বাংলাদেশ সময়
  • ডোনাল্ড ট্রাম্প (বামে) ও রজব তাইয়্যেব এরদোগান
    ডোনাল্ড ট্রাম্প (বামে) ও রজব তাইয়্যেব এরদোগান

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগানকে এই কথা বলার পরিকল্পনা নিয়েছেন যে, ন্যাটো সামরিক জোটে রাশিয়ার অস্ত্রের কোন ঠাঁই নেই; রাশিয়া থেকে ন্যাটোর কোনো সদস্য গুরুত্বপূর্ণ সামরিক সরঞ্জাম কিনতে পারবে না।

গতকাল টেলিভিশন চ্যানেল সিবিএস-কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা ও ব্রায়েন একথা বলেন। রাশিয়া থেকে তুরস্কের এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনার প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, "আমরা খুবই হতাশ"। মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা বলেন, “তুর্কি প্রেসিডেন্ট যখন ওয়াশিংটন সফরে আসবেন তখন আমাদের পক্ষ থেকে এটাই হবে তার জন্য খুব পরিষ্কার বার্তা।

ও ব্রায়েন ন্যাটোর ব্যাপারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অবস্থানকে পুনর্ব্যক্ত করে বলেন, এই জোটের ভেতরে কিছুটা ফাটল ধরেছে কারণ জোটের সব সদস্য তাদের জন্য ধার্যকৃত অর্থ পরিশোধ করছে না।

মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা ও ব্রায়েন

তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান চলতি সপ্তাহে ওয়াশিংটন সফরে যাবেন এবং এ সময় তিনি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক করবেন। বৈঠক শেষে দুই প্রেসিডেন্ট যৌথ সংবাদ সম্মেলনে অংশ নেবে।

রাশিয়া থেকে তুরস্ক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৪০০ কেনার যে সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করেছে সে ব্যাপারে মূলত আমেরিকা হতাশা প্রকাশ করল। আমেরিকা বরাবরই রাশিয়া থেকে এই ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থার কেনার বিরোধিতা করে আসছে। এ জন্য আমেরিকা তুরস্কের কাছে মার্কিন পেট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা এবং সর্বাধুনিক জঙ্গিবিমান এফ-৩৫ বিক্রি করার সিদ্ধান্ত বাতিল করেছে।#

পার্সটুডে/এসআইবি/১১

ট্যাগ

মন্তব্য