ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২০ ০৮:১৪ Asia/Dhaka
  • ফাইল ছবি
    ফাইল ছবি

আফগানিস্তানের তালেবান আবারো দেশটি থেকে সকল দখলদার মার্কিন সেনাকে সরিয়ে নেয়ার আহ্বান জানিয়েছে। আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে আমেরিকার সঙ্গে তালেবানের একটি সমঝোতা চুক্তি সই হতে যাচ্ছে বলে যখন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম খবর দিচ্ছে তখন তালেবান ওয়াশিংটনের প্রতি এ আহ্বান জানাল।

তালেবান গতকাল (শনিবার) আমেরিকাকে উদ্দেশ করে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে বলেছে, মার্কিনীদেরকে আফগানিস্তানে সাবেক সোভিয়েত বাহিনীর পরাজয় থেকে শিক্ষা নিতে হবে। আমেরিকানারা আফগানিস্তানে জোর করে থেকে যেতে চাইলে তাদেরকে সেই পরিণতি ভোগ করতে হবে যা ভোগ করেছিল সাবেক সোভিয়েত ইউনয়ন।

প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি

মার্কিন দৈনিক নিউ ইয়র্ক টাইমস গত সপ্তাহে তালেবানের সঙ্গে আমেরিকার চলমান আলোচনার কথা উল্লেখ করে জানিয়েছিল, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প শর্তসাপেক্ষে আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহারে সম্মতি দিয়েছেন। শর্তটি হচ্ছে, দু’পক্ষের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরের এক সপ্তাহ আগে থেকে তালেবানকে সহিংসতা বন্ধ রাখতে হবে। এক সপ্তাহ আফগানিস্তানের কোথাও তালেবান সশস্ত্র হামলা না চালালে বোঝা যাবে তারা চুক্তির শর্ত মেনে চলবে।

আমেরিকা গত প্রায় এক বছর যাবত আফগান সরকারকে পাশ কাটিয়ে তালেবানের সঙ্গে সরাসরি আলোচনা চালিয়েছে। কিন্তু এসব আলোচনা আফগানিস্তানের জনগণের জন্য কোনো ইতিবাচক ফল বয়ে আনেনি।

আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্টের দপ্তর এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, আমেরিকার সঙ্গে সম্ভাব্য চুক্তিতে তালেবান আফগানিস্তানে সহিংসতা ও সশস্ত্র হামলা বন্ধ রাখতে রাজি হয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়, জার্মানির মিউনিখে নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগ দিতে যাওয়া প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনির সঙ্গে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্ক এসপার সাক্ষাৎ করে তালেবানের এ মনোভাবের কথা জানিয়েছেন।#

পার্সটুডে/এমএমআই/১৬

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ

মন্তব্য