মার্চ ৩১, ২০২০ ১৯:১৮ Asia/Dhaka
  • ব্রিটিশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়
    ব্রিটিশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

ব্রিটিশ সরকার বলেছে করোনাভাইরাস মোকাবেলায় ইরানের সক্ষমতার ওপর নিষেধাজ্ঞার কোনো প্রভাব নেই। ব্রিটেনের জনগণের দেওয়া স্মারকলিপির জবাবে সেদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় (৩১ মার্চ) আজ এ বক্তব্য দিয়েছে।

ব্রিটিশ পার্লামেন্টের ওয়েব সাইটে আজ আরও লেখা হয়েছে: করোনাভাইরাস মোকাবেলায় ইরানকে সাহায্য করার জন্য জনগণের আবেদনে সরকার অতি দ্রুত সাড়া দিয়েছে। ব্রিটেনসহ পরমাণু সমঝোতার ইউরোপীয় পক্ষগুলো তাদের দেওয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে গড়িমসি করার কারণ উল্লেখ করে নি। উল্টো তারা দাবী করছে: ২০১৬ সাল থেকে ইরান বিরোধী অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার ও জাতিসংঘ আরোপিত কোনো কোনো নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার সংক্রান্ত ২২৩১ নম্বর প্রস্তাব অনুসারে তারা তাদের অঙ্গিকার পুরোপুরি মেনে চলেছে।

ব্রিটিশ পার্লামেন্টের ওয়েব সাইট

সম্প্রতি ব্রিটেনের অন্তত ১৪ হাজার নাগরিক ইরান বিরোধী নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে সরকারের উদ্দেশ্যে লেখা একটি স্মারক লিপিতে স্বাক্ষর করেছে। ব্রিটিশ পার্লামেন্টের ওয়েব সাইটে আজ ওই স্মারক লিপিটি ছাপা হয়েছে। স্মারক লিপিতে স্বাক্ষরকারীরা লিখেছেন: করোনাভাইরাস সংকটকালে ইরান বিরোধী নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের ঘটনা একটি মানবিক পদক্ষেপ হিসেবে বিবেচিত হবে।

রাষ্ট্রদূত হামিদ বায়িদি নেজাদ

ইতোপূর্বে লন্ডনে নিযুক্ত ইরানের রাষ্ট্রদূত হামিদ বায়িদি নেজাদ বলেছেন: তিনি আশা করছেন ব্রিটিশ সরকার বিশ্ববাসীর আবেদনে সাড়া দিয়ে ইরানের ওপর আরোপিত মার্কিন অবৈধ নিষেধাজ্ঞা মেনে না চলার ঘোষণা দেবে। একইসঙ্গে করোনাভাইরাস সংকট মোকাবেলার ক্ষেত্রে ইরানের অর্থনৈতিক ও লজিস্টিক সক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহযোগিতার পাশাপাশি নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে নিজেদের রাজনৈতিক ও কূটনৈতিক শক্তিকে কাজে লাগাবে।#

পার্সটুডে/এনএম/৩১

খবরসহ আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সব লেখা ফেসবুকে পেতে এখানে ক্লিক করুন এবং নোটিফিকেশনের জন্য লাইক দিন 

 

 

ট্যাগ

মন্তব্য