মার্চ ০৬, ২০২১ ১০:৫৩ Asia/Dhaka
  • ২০১৯ সালে ইরান পরমাণু সমঝোতা বাস্তবায়নের পরিমাণ কমাতে শুরু করে এবং বর্তমাণে শতকরা ২০ মাত্রায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করছে তেহরান
    ২০১৯ সালে ইরান পরমাণু সমঝোতা বাস্তবায়নের পরিমাণ কমাতে শুরু করে এবং বর্তমাণে শতকরা ২০ মাত্রায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করছে তেহরান

ইরানের পরমাণু সমঝোতায় আমেরিকার ফিরে আসা নিয়ে আলোচনা করতে অবিলম্বে জরুরি বৈঠক ডাকার আহ্বান জানিয়েছে রাশিয়া। জাতিসংঘের ইউরোপীয় দপ্তরগুলোতে নিযুক্ত রুশ স্থায়ী প্রতিনিধি মিখাইল উলিয়ানোভ এ আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি শুক্রবার রাতে ‘রাশা-২৪’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, তার দেশ যে জরুরি বৈঠকের দাবি জানিয়েছে তার উদ্দেশ্য আমেরিকাকে পরমাণু সমঝোতায় ফিরিয়ে আনা এবং ইরানকে তার প্রতিশ্রুতি পুরোপুরি বাস্তবায়ন করতে উৎসাহিত করা।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার পশ্চিমা বার্তা সংস্থাগুলো খবর দেয়, আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থা বা আইএইএ’র নির্বাহী বোর্ডের সভায় ইরানবিরোধী প্রস্তাব উত্থাপন থেকে বিরত থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ব্রিটেন, জার্মানি ও ফ্রান্স। তিন ইউরোপীয় দেশের এই সিদ্ধান্তের ফলে ইরানের পরমাণু সমঝোতা নিয়ে চলমান অচলাবস্থা অবসানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।

আমেরিকার নয়া প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন বলছে, পরমাণু সমঝোতা থেকে সাবেক প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বেরিয়ে যাওয়ার কারণে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আমেরিকা একঘরে হয়ে পড়েছিল। সে অবস্থার অবসান ঘটানোর জন্য ওয়াশিংটন পরমাণু সমঝোতায় ফিরতে চায়। কিন্তু বাইডেন প্রশাসন আগে ইরানকে তার পরমাণু সমঝোতায় দেয়া প্রতিশ্রুতি পুরোপুরি বাস্তবায়নের আহ্বান জানাচ্ছে।

এদিকে তেহরান বলেছে, আমেরিকা পরমাণু সমঝোতা থেকে পুরোপুরি বেরিয়ে যাওয়ার এক বছর পর থেকে ইরান তার প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের পরিমাণ কমাতে শুরু করেছে। কাজেই ফিরে আসার ক্ষেত্রেও আমেরিকাকে অগ্রগামী হতে হবে। মার্কিন সরকার এ সমঝোতায় ফিরে এসে তেহরানের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করলে ইরানও কয়েক দিনের মধ্যে তার প্রতিশ্রুতিতে পুরোপুরি ফিরে যাবে। #

পার্সটুডে/এমএমআই/৬

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।  

 

ট্যাগ