মার্চ ০৬, ২০২১ ১২:০১ Asia/Dhaka
  • মিয়ানমারে সেনা শাসনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ চলছে, সেই সঙ্গে চলছে দমন-পীড়ন
    মিয়ানমারে সেনা শাসনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ চলছে, সেই সঙ্গে চলছে দমন-পীড়ন

মিয়ানমারে সেনা শাসনের অবসান ঘটিয়ে জনগণের শাসন প্রতিষ্ঠার জন্য দ্রুত ব্যবস্থা নিতে নিরাপত্তা পরিষদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মিয়ানমার বিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ দূত ক্রিস্টাইন বারজেনার। মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর হাতে কয়েকডজন বিক্ষোভকারী নিহত হওয়ার পর তিনি এই আহ্বান জানালেন।

ক্রিস্টাইন রারজেনার স্পষ্ট করে বলেছেন, মিয়ানমারের পরিস্থিতি মানবিক সংকটের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে, দ্রুত এ অবস্থা ঠেকানো দরকার। গতকাল জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের রুদ্ধদ্বার বৈঠকে বারজেনার আরো বলেন, মিয়ানমার বিষয়ে আগের যে কোনো সময়ের চেয়ে এখন ঐক্য প্রতিষ্ঠা বেশি জরুরি।

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠক (ফাইল ফটো)

জাতিসংঘের এ বিশেষ দূত বলেন, “আমি প্রতিদিন অন্তত ২,০০০ বার্তা পাচ্ছি যাতে মিয়ানমার বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়ার জন্য দেশটির নারী, পুরুষ, শিক্ষার্থী নির্বিশেষে সমাজের সাধারণ মানুষ মিয়ানমার বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছে এবং তারা এই আস্থা রাখছে যে, জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ মিয়ানমার বিষয়ে কিছু করবে।

গত ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্রেসির নেত্রী অং সাং সুচি-সহ বহু রাজনৈতিক নেতা ও মন্ত্রীকে আটক করে এবং সেনাপ্রধান মিন অং হ্লাইং রাষ্ট্রক্ষমতা গ্রহণ করেন। মিয়ানমারের সাধারণ জনগণ সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে রাজপথে নেমেছে এবং এ পর্যন্ত বহু মানুষ নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে নিহত হয়েছে।#

পার্সটুডে/এসআইবি/৬

ট্যাগ