মে ০৮, ২০২১ ০৫:৫৮ Asia/Dhaka
  • মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস
    মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস

আমেরিকা নিজের কাছে আটক থাকা ইরানের বিপুল পরিমাণ অর্থ থেকে ১০০ কোটি ডলার অবমুক্ত করতে পারে বলে একটি নিউজ চ্যানেল যে খবর দিয়েছিল তা অস্বীকার করেছে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস এক টুইটার বার্তায় লিখেছেন, “আমরা একতরফাভাবে ইরানের অর্থ মুক্ত করার বিষয়টি পর্যালোচনা করছি বলে যে খবর বেরিয়েছে তা সঠিক নয়।আমেরিকা একতরফাভাবে কোনো পদক্ষেপ নেবে না বরং দ্বিপক্ষীয়ভাবে উদ্যোগ নেয়া হলে তখনই এ কাজ করবে ওয়াশিংটন।”

তার এ বক্তব্যের কয়েক ঘণ্টা আগে মার্কিন নিউজ চ্যানেল সিএনএন এক রিপোর্টে দাবি করেছিল, ইরান যাতে মানবিক কাজে ব্যবহার করতে পারে সেজন্য জো বাইডেন সরকার ইরানের ১০০ কোটি ডলার অর্থ অবমুক্ত করার কথা চিন্তাভাবনা করছে। ইরানের পক্ষ থেকে এ খবরের ব্যাপারে এখনো কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি।

‘সর্বোচ্চ চাপ’ প্রয়োগের নীতি অনুসরণ করে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০১৮ সালের মে মাসে পরমাণু সমঝোতা থেকে আমেরিকাকে বের করে নেন। এরপর এক বছর পর্যন্ত ইরান এই সমঝোতা বাস্তবায়নে সম্পূর্ণ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ ছিল কিন্তু অন্য পক্ষগুলো সমঝোতা বাস্তবায়ন না করায় ৩৬ অনুচ্ছেদ অনুসারে ইরান সমঝোতার বেশকিছু ধারা বাস্তবায়ন স্থগিত করে দেয়।

বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তার দেশকে এই সমঝোতায় ফিরিয়ে আনার আগ্রহ প্রকাশ করলেও তিনি ইরানকে আগে তার প্রতিশ্রুতিতে পুরোপুরি ফিরে যাওয়ার আহ্বান জানাচ্ছেন। কিন্তু ইরান বলেছে, আমেরিকা আগে এই সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গেছে বলে তাকে আগে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে এতে ফিরে আসতে হবে।#

পার্সটুডে/এমএমআই/৮

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ