সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২১ ০৬:১৯ Asia/Dhaka
  • পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশি
    পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশি

আমেরিকায় জব্দ করা আফগানিস্তানের ১,০০০ কোটি [১০ বিলিয়ন] ডলার অর্থ ছেড়ে দেয়ার জন্য মার্কিন সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে পাকিস্তান। পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশি এক বক্তব্যে বলেছেন, আফগানিস্তানের অর্থনীতি পতনের দ্বারপ্রান্তে রয়েছে; এ অবস্থায় এই অর্থনীতি বাঁচানোর জন্য কাবুলের আমেরিকায় আটকে পড়া অর্থ প্রয়োজন।

আফগানিস্তান সংকটে পশ্চিমা দেশগুলো পাকিস্তানকে বলির পাঠা বানানোর চেষ্টা করছে বলেও অভিযোগ করেন কোরেশি। তিনি বলেন, ইসলামাবাদের একার পক্ষে আফগান সংকটের সমাধান করা সম্ভব নয় এবং এটি পাকিস্তানের একার দায়িত্বও নয়।

এর আগে তালেবানের নেতৃত্বাধীন আফগানিস্তানের অন্তর্বর্তী সরকারও বহুবার দেশটির আটকে পড়া অর্থ ছেড়ে দিতে মার্কিন সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

গতমাসে তালেবান আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখল করার পর আমেরিকার বিভিন্ন ব্যাংকে থাকা আফগান সরকারের শত শত কোটি ডলার অর্থের পাশাপাশি দেশটির স্বর্ণের রিজার্ভ আটক করে মার্কিন সরকার। আফগানিস্তানের অর্থনীতিতে তাৎক্ষণিকভাবে সরাসরি এর প্রভাব পড়ে এবং দেশটির ব্যবসা-বাণিজ্য ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওই অর্থের পরিমাণ ১০ বিলিয়ন ডলার বলে ঘোষণা করলেও প্রকৃতপক্ষে আফগানিস্তানের ঠিক কি পরিমাণ অর্থ আমেরিকায় আটকা পড়েছে সে সম্পর্কে সুস্পষ্ট কোনো পরিসংখ্যান পাওয়া যায়নি।

গত ১৫ আগস্ট তালেবান আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের নিয়ন্ত্রণ গ্রহণ করে। এরপর ওই মাসের ৩১ তারিখ ২০ বছরের দখলদারিত্বের অবসান ঘটিয়ে অত্যন্ত অপমানজনকভাবে আফগানিস্তান ত্যাগ করে মার্কিন সেনারা।#

পার্সটুডে/এমএমআই/২৮

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ