অক্টোবর ২৩, ২০২১ ০৬:৫৫ Asia/Dhaka
  • আমরুল্লাহ সালেহ (ক্ষমতায় থাকার সময়কার ছবি)
    আমরুল্লাহ সালেহ (ক্ষমতায় থাকার সময়কার ছবি)

সাবেক আফগান ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহ আফগানিস্তানের ওপর তালেবানের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠাকে ‘পাকিস্তানের আফগানিস্তান দখল’ বলে অভিহিত করেছেন। তিনি শুক্রবার এক টুইটার বার্তায় বলেছেন, “পাকিস্তানের আফগানিস্তান দখলের ঘটনা গত দুই মাসে দারিদ্র, সামাজিক অস্থিরতা এবং শরিয়তের নামে নারীদের দাসত্ব ছাড়া আফগানিস্তানকে আর কিছু দিতে পারেনি।”

তিনি আরো লিখেছেন, এই সময়ে আফগানিস্তানের মূল কূটনীতি কাতারের রাজধানী দোহায় স্থানান্তরিত হয়েছে এবং আফগানিস্তানের সামরিক সিদ্ধান্তগুলো রাওয়ালপিন্ডিতে নেয়া হচ্ছে। সালেহর ভাষায়, “এসব ঘটনার ঘনঘটায় কোয়েটার হক্কানিয়া মাদ্রাসায় প্রশিক্ষিত পাগড়িধারী সন্ত্রাসীরা আফগানিস্তানের ক্ষমতায় অধিষ্টিত হয়েছে।”

সাবেক আফগান ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহ আরো লিখেছেন, “পাকিস্তান যা গিলে ফেলেছে তার চেয়ে আফগানিস্তান অনেক বড়।” তিনি তালেবান ও পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে আফগান জনগণের প্রতি আহ্বান জানান।

তিনি এমন সময় এসব অভিযোগ করলেন যখন তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি না দিলেও আফগানিস্তানের প্রায় সব প্রতিবেশী দেশ তালেবানের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা শুরু করেছে। রাশিয়া সম্প্রতি তালেবান প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে ১০টি আঞ্চলিক দেশের প্রতিনিধিদের নিয়ে একটি বৈঠক করেছে এবং ওই বৈঠক থেকে আফগানিস্তানকে সাহায্য করার জন্য বিশ্ব সমাজের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আটকে পড়া আফগানিস্তানের শত শত কোটি ডলার কাবুলকে ফেরত দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। এসব অর্থের বেশিরভাগ আমেরিকা জব্দ করেছে।

গত ১৫ আগস্ট তালেবান কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেয়ার পর আমরুল্লাহ সালেহ পাঞ্জশির উপত্যকায় পালিয়ে যান। তবে বর্তমানে তার অবস্থান অজানা হলেও কেউ কেউ বলছেন, সালেহসহ তালেবানবিরোধী আফগানিস্তানের শীর্ষস্থানীয় ব্যক্তিত্বরা তাজিকিস্তানে অবস্থান করছেন। আমরুল্লাহ সালেহ’র সর্বসাম্প্রতিক বক্তব্যের ব্যাপারে তালেবান এখনও প্রতিক্রিয়া জানায়নি।#

পার্সটুডে/এমএমআই/২৩

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ