ডিসেম্বর ২১, ২০২১ ১৫:৩১ Asia/Dhaka

শ্রোতাবন্ধুরা, আপনাদের সবাইকে অনেক অনেক প্রীতি আর শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করছি আপনাদেরই চিঠিপত্রের আসর প্রিয়জন। আজকের আসরে আপনাদের স্বাগত জানাচ্ছি আমি নাসির মাহমুদ এবং আমি আকতার জাহান।

আকতার জাহান: প্রিয়জনের প্রযোজক আশরাফ ভাই ছুটিতে থাকায় আজ হাদিস শোনানোর দায়িত্বটি আমিই পালন করতে চাই। মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) বলেছেন: "কোনো ব্যক্তি তোমাদেরকে উপকার করলে তাকে তার বিনিময় দেবে। আর যদি তোমাদের কিছু না থাকে তাহলে প্রশংসা কর। কেননা, নিশ্চয় প্রশংসা হলো প্রতিদান।"

নাসির মাহমুদ: প্রশংসার মাধ্যমে হলেও আমরা সবাই উপকারীর বিনিময় দেওয়া চেষ্টা করব- এ প্রত্যাশা করে নজর দিচ্ছি ইমেইলের ইনবক্সে।

বাংলাদেশের কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম থানার নোয়াপাড়া গ্রাম থেকে এম. এইচ. সোহেল পাঠিয়েছেন আসরের প্রথম মেইলটি। তিনি লিখেছেন, "ইরানসহ মধ্যেপ্রাচ্যর বস্তুনিষ্ঠ সংবাদের জন্য উল্লেখযোগ্য একটি গণমাধ্যম রেডিও তেহরান। এ বেতারের মাধ্যমে আমরা মধ্যপ্রাচ্যের গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ পেয়ে থাকি। তাছাড়া, রেডিও তেহরানের অনুষ্ঠানমালাও সবার হৃদয় জয় করেছে। যারা একবার রেডিও তেহরান মনোযোগ সহকারে শুনবে তাদের সবসময় শুনতে মন চাইবে।"

এ চিঠিতে সোহেল ভাই তার পছন্দের অনুষ্ঠানগুলোর নাম উল্লেখ করেছেন। অনুষ্ঠানগুলো হলো- রংধনু আসর, প্রিয়জন, পাশ্চাত্য জীবন ব্যবস্থা, আদর্শ মানুষ গড়ার কৌশল, কথাবার্তা, ইরাক-ইরান যুদ্ধের ইতিহাস, সাক্ষাৎকার, গল্প ও প্রবাদের গল্প এবং ইরান ভ্রমণ।

আকতার জাহান: এম. এইচ. সোহেল ভাইকে ধন্যবাদ মতামতসমৃদ্ধ চিঠিটির জন্য।

ভারতের আসামের বড়পেটা জেলার কান্দুলিয়া থেকে আব্দুস সালাম সিদ্দিক পাঠিয়েছেন এবারের মেইলটি।

তিনি লিখেছেন "আমি ইরানের জাতীয় সম্প্রচার সংস্থা আইআরআইবির বিশ্ব কার্যক্রমের বাংলা অনুষ্ঠান রেডিও তেহরান বাংলা'র জন্ম লগ্নের শ্রোতা। বহির্বিশ্বের যত বেতার অনুষ্ঠান শুনি তাঁর ভেতর এক নম্বর পছন্দের বেতারকেন্দ্র হলো রেডিও তেহরান। এ বেতারটি আমার জীবনঘনিষ্ঠ হবার একমাত্র কারণ হলো এর ব্যতিক্রমধর্মী প্রচারণা।"

এরপর রেডিও তেহরানের বিশ্বসংবাদ এবং অনুষ্ঠানমালা কেন ভালো লাগে তার বেশকিছু কারণ তুলে ধরেছেন।  

নাসির মাহমুদ: আব্দুস সালাম সিদ্দিক ভাইয়ের পুরো চিঠিটি আমাদের ওয়েবসাইট পার্সটুডে ডটকমে প্রকাশ করা হয়েছে। আগ্রহীরা সেখান থেকে পড়ে নিতে পারেন। তো, রেডিও তেহরান সম্পর্কে মূল্যায়নধর্মী চিঠিটির জন্য আব্দুস সালাম সিদ্দিক ভাই আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

বাংলাদেশের খুলনা জেলার দাকোপ থানার খুটাখালি বাজার থেকে মুকুল সরদার পাঠিয়েছেন এবারের মেইলটি।

আকতার জাহান: নতুন আঙ্গিকে শুরু হওয়া প্রিয়জনে মুকুল ভাইয়ের সম্ভবত এটাই প্রথম চিঠি।

নাসির মাহমুদ: হ্যাঁ, আপনি ঠিকই ধরেছেন। একসময় মুকুল ভাই নিয়মিত আমাদের কাছে চিঠি লিখতেন। যাইহোক, আমি বরং তার চিঠি থেকেই খানিকটা পড়ে শোনাচ্ছি। তিনি লিখেছেন, "অনেক দিন পর আবার ফিরে এলাম প্রিয়জনের আসরে প্রিয়জনের মাঝে। বহুদিন লেখা হয়ে ওঠেনি একথা ঠিক তবে রেডিও তেহরানের বাংলা বিভাগের সঙ্গেই আছি। প্রিয় অনুষ্ঠানগুলো মিস করলে আপনাদের ওয়েব সাইটে ঢুকে পড়ি। ওয়েব সাইটে কেবল অনুষ্ঠানগুলো শুনি তাই নয়, নানা স্বাদের ফিচার এবং স্টোরিগুলো পড়ে নিজেকে সমৃদ্ধ করি। বিশ্ব সংবাদ, দৃষ্টিপাত, কথাবার্তা আমাকে খুবই সমৃদ্ধ করে। এছাড়াও ইরান ভ্রমণ, রংধনু, স্বাস্থ্য কথা, আদর্শ মানুষ গড়ার কৌশল, আলাপন আমার খুব প্রিয় অনুষ্ঠান। তবে আমার পছন্দের তালিকায় একেবারেই উপরের দিকে রয়েছে প্রিয়জন।"

আকতার জাহান: দীর্ঘ বিরতির পর প্রিয়জনের আসরে চিঠি লিখায় মুকুল সরদার ভাই আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ। আশা করি এখন থেকে নিয়মিত লিখবেন।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহার জেলার মেখলিগঞ্জ থেকে আমাদের নিয়মিত শ্রোতা ও পত্রলেখিকা মনীষা রায় পাঠিয়েঠেন এই মেইলটি।

তিনি লিখেছেন, "৫ ডিসেম্বর সান্ধ্য অধিবেশনে 'আদর্শ মানুষ গড়ার কৌশল' অনুষ্ঠানের ৩২তম পর্বে পরিবারে এক বা একাধিক সন্তান থাকা কিংবা সন্তানহীন পরিবার নিয়ে আলোকপাত বিশেষ মনোগ্রাহী লেগেছে। এছাড়া, এদিনের বিশ্বসংবাদ, দৃষ্টিপাত, কথাবার্তা এবং আসমাউল হুসনা অনুষ্ঠান ভালো লেগেছে।

সুন্দর অনুষ্ঠান উপহার দেওয়ার জন্য রেডিও তেহরান বাংলা বিভাগের সকল কুশীলবদেরকে অশেষ ধন্যবাদ জানাই।"

নাসির মাহমুদ: আমাদের একদিনের পুরো অনুষ্ঠান শোনার পর মতামত জানিয়ে চিঠি লিখায় মনীষা রায় আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।

নাসির মাহমুদ: অনুষ্ঠানের এ পর্যায়ে আমরা রেডিও তেহরানের ৩৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে 'আইআরআইবি ফ্যান ক্লাব বাংলাদেশ' আয়োজিত প্রবন্ধ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী এক শ্রোতাবন্ধুর লেখার কিছু অংশ তুলে ধরব। আজকের লেখাটি বাংলাদেশের  কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রামের সাতঘড়িয়া গ্রামের শ্রোতা মোঃ এমদাদ উল্যাহর। তিনি লিখেছেন, "মানুষের জীবন গড়ার মূল সময় হচ্ছে শৈশবকাল। রেডিও তেহরানের মাধ্যমে সেই শিশুদের উৎসাহ এবং সঠিক পরামর্শ দেওয়া হয় ইসলামী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে। এক কথায়- সত্য ও ন্যায়ের কণ্ঠস্বর- এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে রেডিও তেহরান এগিয়ে যাচ্ছে। সঠিক মানুষ গড়ার ক্ষেত্রে এটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছে। বিশেষ করে ইসলামের অতীত ঘটনাগুলো সুন্দরভাবে বর্ণনায় ইসলাম প্রচারে গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে রেডিও তেহরান।"

আকতার জাহান: রেডিও তেহরান সম্পর্কে যথাযথ মূল্যায়নের জন্য এমদাদ উল্যাহ ভাইকে অশেষ ধন্যবাদ।

তো শ্রোতাবন্ধুরা, অনুষ্ঠানের এ পর্যায়ে আমরা গত এক বছরে রেডিও তেহরানের অনুষ্ঠানমালা ও শ্রোতাবান্ধব কর্মসূচি সম্পর্কে মূল্যায়ন এবং আগামী বছরের জন্য গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ জানব ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদের সিনিয়র শ্রোতা এসএম নাজিমউদ্দিনের কাছ থেকে।  

নাসির মাহমুদ: ২০২১ সালে রেডিও তেহরানের অনুষ্ঠানমালা, শ্রোতাবান্ধব কর্মসূচি সম্পর্কে মূল্যায়নের পাশাপাশি আগামী বছরের অনুষ্ঠানের জন্য পরামর্শ দেওয়ায় নাজিমউদ্দিন ভাই আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

ভারতের ছত্তিশগড়ের ভিলাই থেকে আনন্দ  মোহন  বাইন পাঠিয়েছেন আসরের পরের চিঠিটি। তিনি লিখেছেন, 'পাশ্চাত্যে জীবন ব্যবস্থা' অনুষ্ঠানে মানুষ ও পোষা প্রাণী অর্থাৎ কুকুর/বিড়াল নিয়ে একটি গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা শুনলাম। যারা কুকুর বিড়ালের সঙ্গে একসাথে বসবাস করেন তাদের কী কী সমস্যা হতে পারে তা সুন্দর ভাবে তুলে ধরা হলো। জানতে পারলাম- এই কুকুর/বিড়াল থেকে নানাবিধ রোগবালাই হতে পারে এমনকি মেয়েদের সিস্ট পর্যন্ত হতে পারে। ইসলাম ধর্মে এই বিষয়ে কী বলা হয়েছে তার বিবরণ শুনলাম অনুষ্ঠানে। সুন্দর একটি অনুষ্ঠানের জন্য রেডিও  তেহরান  বাংলা বিভাগকে ধন্যবাদ।"

আকতার জাহান:  'পাশ্চাত্যে জীবন ব্যবস্থা' শীর্ষক অনুষ্ঠান থেকে উপকৃত হয়েছেন জেনে ভালো লাগল। চিঠি লিখার জন্য আনন্দ মোহন বাইন আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

শ্রোতাবন্ধুরা, অনুষ্ঠানের এ পর্যায়ে ক্লাব কার্যক্রমের দুটি খবর। প্রথম খবরটি পাঠিয়েছেন, আইআরআইবি ফ্যান ক্লাব, কিশোরগঞ্জের অর্থ সম্পাদক শরিফা আক্তার পান্না। তিনি লিখেছেন, গত ৩ ডিসেম্বর কিশোরগঞ্জ কেন্দ্রীয় বেতার শ্রোতা সংঘ’র প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে আয়োজিত শ্রোতা সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ বেতারের পরিচালক (অনুষ্ঠান) সায়েদ মোস্তফা কামাল একথা বলেন। সংগঠনের সভাপতি গিয়াস উদ্দিন আহম্মেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত শ্রোতা সম্মেলনে আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ বেতারের পরিচালক (শিক্ষা) মোঃ রুবাইয়াত শামীম চৌধুরী, গুরুদয়াল সরকরি কলেজের সহকারী অধ্যাপক মোঃ শাহাদত হোসেন প্রমুখ

নাসির মাহমুদ: ক্লাব কার্যক্রমের পরের খবরটি পাঠিয়েছেন সাউথ এশিয়া রেডিও ক্লাব (সার্ক) বাংলাদেশ-এর ভাইস চেয়ারম্যান তাছলিমা আক্তার লিমা। তিনি জানিয়েছেন, সিলেট জেলার কানাইঘাট উপজেলার ১নং লক্ষীপ্রসাদ ইউনিয়নের কাড়াবাল্লা সুরমা বাজার মাঠে গত ৩ ডিসেম্বর কাড়াবাল্লা-বড়চাতল সুরমা দল বনাম দনা টাইগার দলের মধ্যে আইআরআইবি প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। 'রেডিও তেহরান'-এর প্রচারণার অংশ হিসেবে এই ফুটবল ম্যাচের আয়োজন করে দেশ-বিদেশের অন্যতম বেতার শ্রোতা সংগঠন সাউথ এশিয়া রেডিও ক্লাব (সার্ক) বাংলাদেশ।

ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও রেডিও এক্টিভিস্ট দিদারুল ইকবালের সভাপতিত্বে ও পরিচালনায় এই প্রীতি ফুটবল ম্যাচের উদ্বোধন করেন, বাংলাদেশ বেতারের সাবেক পরিচালক ও ক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা ড. মির শাহ আলম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কানাইঘাটের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আশিক উদ্দীন চৌধুরী, ১নং লক্ষী প্রসাদ পূর্ব ইউনিয়নের মেম্বার মঞ্জুর আহমদ চৌধুরী সেলিম এবং সুরতুন্নেছা মেমোরিয়াল একাডেমির প্রধান শিক্ষক সাজ উদ্দীন সাজু।

আকতার জাহান:  ক্লাব কার্যক্রমের খবর পাঠানোয় শরিফা আক্তার পান্না ও তাছলিমা আক্তার লিমা আপনাদের দুজনকেই অনেক অনেক ধন্যবাদ।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বালুর ঘাট থেকে বিধান চন্দ্র সান্যাল পাঠিয়েছেন এবারের মেইলটি। তিনি লিখেছেন, "রেডিও তেহরানের প্রচার ও প্রসারে বিভিন্ন ক্লাবকে নানা ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করতে দেখা যাচ্ছে যা শ্রোতা হিসেবে আমাদের কাছে যেমন গর্বের, তেমনি আনন্দের। বিশেষ করে বাংলাদেশের তিনটি ক্লাবের উদ্যোগ মনে রাখার মতো। এদের একটি ক্লাব হলো- সাউথ এশিয়া রেডিও ক্লাব। আর অন্য দুটি হলো আইআরআইবি ফ্যান ক্লাব বাংলাদেশ এবং আইআরআইবি ফ্যান ক্লাব- কিশোরগঞ্জ। আমার প্রস্তাব এই তিন ক্লাবকে যেন যথাযথ মূল্যায়ন করা হয়।"

নাসির মাহমুদ: ভাই বিধান চন্দ্র সান্যাল, আপনি নিশ্চয়ই অবগত আছেন যে, চলতি বছর আমরা তিনটি ক্লাবকে শ্রেষ্ঠ শ্রোতা ক্লাবের পুরস্কার প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আপনি যে তিনটি ক্লাবের কথা উল্লেখ করেছেন তারাও প্রতিযোগিতায় ভালো ফল করবেন বলে আমরা আশা করি।   

বাংলাদেশের ঢাকা সেনানিবাস থেকে সোহেল রানা হৃদয় পাঠিয়েছেন আসরের শেষ মেইলটি।

তিনি লিখেছেন, "রেডিও তেহরানের বাংলা বিভাগের বর্তমান প্রচারিত সকল অনুষ্ঠান দারুণ উপভোগ করছি। সপ্তাহজুড়ে নিয়মিত সবগুলো পর্ব শোনার চেষ্টা করি। কোনো কারণে সময় মতো শুনতে না পারলে পরে ইউটিউব বা ফেসবুক লাইভের অনুষ্ঠান থেকে শুনে নিই। ৪ ডিসেম্বরের পুরো অনুষ্ঠান শুনলাম। দারুণ উপভোগ্য ছিল প্রতিটি পর্ব। বিশেষ করে 'ইরাক-ইরান যুদ্ধের ইতিহাস' শীর্ষক অনুষ্ঠানটি বেশ ভালো লাগল। আমি মনে করি সব যুদ্ধেই মানবতার পরাজয় হয়। আর সেই যুদ্ধ যদি কোনো মুসলিম দেশের মধ্যে সংঘটিত হয় তাহলে আত্মাটা কেঁদে ওঠে বারবার। তাই যুদ্ধ নয়, শান্তি চাই।"

আকতার জাহান: সোহেল রানা হৃদয় ভাইয়ের সঙ্গে কণ্ঠ মিলিয়ে আমরাও বলতে চাই- 'যুদ্ধ নয়, শান্তি চাই'।

তো শ্রোতাবন্ধুরা, আজকের আসর থেকে বিদায় নেওয়ার আগে আপনাদের জন্য রয়েছে একটি জীবনমুখী গান। গানের কথা, সুর ও শিল্পী আমিরুল মোমেনীন মানিক। 

নাসির মাহমুদ: আপনারা গানটি শুনতে থাকুন আর আমরা বিদায় নিই প্রিয়জনের আজকের আসর থেকে।

পার্সটুডে/আশরাফুর রহমান/২১

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন। 

ট্যাগ