ডিসেম্বর ২১, ২০১৯ ২০:৪৪ Asia/Dhaka

ক. বন্ধুরা, আপনাদের অনেক অনেক প্রীতি ও শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করছি আপনাদেরই চিঠিপত্রের আসর প্রিয়জন। আশা করছি সবাই ভালো আছেন। প্রতি আসরের মতো আজও আলোচনা শুরু করবো একটি হাদিস শুনিয়ে।

ইমাম আলী ইবনে মুসা রেজা (আ.) বলেছেন, যে ব্যক্তি পারলৌকিক প্রতিদানের ব্যাপারে দৃঢ় বিশ্বাস করে তার উচিৎ বেশি বেশি দান করা।

খ. চিরন্তন এ শিক্ষা অর্জন করে আমাদের সবাই জীবনের এ পাড়ে এবং ও পাড়ে অসীম শান্তি পাবো বলে আশা করার মধ্য দিয়ে আসরের প্রথমেই হাতে তুলে নিচ্ছি রেডিও তেহরানের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত একট খবর। অক্টোবর মাসের ৪ তারিখে প্রকাশিত এ খবরের শিরোনাম ছিল চীনের সঙ্গে পাল্লা: প্রশান্ত মহাসাগরে নতুন অস্ত্রের মহড়া চালাল আমেরিকা। খবরে বলা হয়েছে, মার্কিন নৌবাহিনী প্রশান্ত মহাসাগরে নতুন ক্ষেপণাস্ত্রের মহড়া চালিয়েছে। চীনের কমিউনিস্ট পার্টির ক্ষমতা গ্রহণের ৭০তম বার্ষিকী উপলক্ষে দেশটির ইতিহাসে সম্ভবত সবচেয়ে বড় সামরিক কুচকাওয়াজে ডংফেং-৪১ নামের বিশাল পরমাণু অস্ত্রবাহী ক্ষেপণাস্ত্রসহ নানা ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র, ড্রোন ও সামরিক সরঞ্জাম প্রদর্শন করেছে। একই দিনে এ মহড়া চালায় আমেরিকা।

ক. এ খবরে পাঠক বন্ধু মকবুল হোসেন লিখেছেন, দিবাস্বপ্ন দেখা থেকে খুব তাড়াতাড়ি পিছু হটেন নইলে কপালে দুঃখ আছে! ইরানের পক্ষে স্বয়ং আল্লাহ রয়েছেন, তোরা আমেরিকানরা ও ইহুদিবাদীরা ধ্বংস হবি নির্ঘাৎ খুব শীঘ্রই।

বহলুল: ফুল খেলবার দিন হয় অদ্য এসে গেছে ধ্বংসের বার্তা। সতর্ক না হলে ফের খুঁজে পাওয়া যাবে না পাত্তা।

খ. ভালোই বললেন বহলুল ভাই। খ্যাতনামা একটি কবিতার প্রথম লাইনের সঙ্গে নিজের তৈরি কথা মিলিয়ে ভালোই তৈরি করেছেন! হ্যা এদিকে...

ক. না মানে আমি কিন্তু শ্রোতা এবং পাঠক বন্ধুদের সঙ্গে কথা বলার জন্য তৈরি হয়ে আছি। আমি তাহলে শুরু করছি। জ্বি ভাই আপনার নাম বলুন এবং পরিচয় দিন ...

খ. আপনি রেডিও তেহরানের অনুষ্ঠান কবে থেকে শোনেন এবং কিভাবে শোনেন?...

বহলুল: মানে আমাদের আশরাফ ভাই আপনাকে রেডিও তেহরান শুনতে উদ্ধুদ্ধ করেছেন এবং এখনও নিয়মিত রেডিও তেহরানের সঙ্গেই আছেন! মারহাবা।

ক. মারহাবা বলার মতোই কাজ ভাই আবদুল্লাহ আল মুজাহিদ। এতোক্ষণ বাংলাদেশের শ্রোতা ভাই আবদুল্লাহ আল মুজাহিদের কথা শুনছিলেন। ভবিষ্যতে তার কথা আরও শুনবো। আর শ্রোতাবন্ধুরা, আমরা আপনাদের কথা শোনারও অপেক্ষায় আছি কিন্তু। ..

বহলুল: রেডিও তেহরানের ফেসবুক গ্রুপে শ্রোতা ভাই বোনেরা যে সব মন্তব্য করেছেন এবারে সেদিকে নজর দিতে হবে। হ্যাঁ

খ. না। বহলুল ভাই না। আমিই শুরু করছি। রাজস্থানে জয় শ্রীরামধ্বনি না দেয়ায় মুসলিম দম্পতিকে মারধর শীর্ষক খবরটি প্রকাশিত হয়েছে অক্টোবর মাসের ৭ তারিখে। এ খবরে বলা হয়েছে ভারতের রাজস্থান রাজ্যের আলওয়ার শহরে এক মুসলিম দম্পতি জয় শ্রীরামধ্বনি দিতে অস্বীকার করায় তাদেরকে মারধর করা হয়েছে। ওই ঘটনায় পুলিশ বংশ ভরদ্বাজ (২৩) ও সুরেন্দ্র মোহন ভাটিয়া (৩২) নামে দু'জনকে গ্রেফতার করেছে।

ক. ফেসবুকে এ খবরে স্বাভাবিক ভাবেই তীব্র প্রতিক্রিয়া হয়েছে। পাঠক বন্ধু মো মনজুরুল ইসলাম বিপ্লবের বক্তব্য এক্ষেত্রে প্রতিনিধিত্বশীল হয়ে উঠেছে। তিনি লিখেছেন, মহান কাজ করেছেন পুলিশ কিন্তু কোন শাস্তি হবে না।

বহলুল: বড়ই দুঃখজনক এ কথা। এর চেয়ে বেদনার আর কি হতে পারে।

খ. তাই তো। যে কোনো মানুষই এতে দুঃখ পাবেন। এদিকে ইসরাইল ও আরব দেশগুলোর মধ্যে সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে চুক্তি শীর্ষক খবরটি প্রকাশিত হয়েছে ৭ অক্টোবর। এ খবরে বলা হয়েছে, ইহুদিবাদী ইসরাইল এবং কয়েকটি আরব দেশ দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে একটি চুক্তিতে পৌঁছেছে। ফিলিস্তিনিদের ভাগ্যে কি ঘটবে সেদিকে খেয়াল না রেখেই জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের বার্ষিক অধিবেশনের অবকাশে ইসরাইলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইসরায়েল গান্তজ এবং আরব দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা চুক্তিতে উপনীত হন।

ক. ফেসবুক গ্রুপে এ খবরে যে সব মন্তব্য হয়েছে তার মধ্যে থেকে মাত্র একটিই তুলে ধরছি। এ মন্তব্যে বলা হয়েছে, যে সব দেশ ফিলিস্তিনি বিরোধী চুক্তি করবে ইহুদিবাদীর সাথে, সে সব দেশকে চিহ্নিত করে বিধ্বংসী জবাব দেয়ার প্রস্ততি  নিতে হবে!

বহলুল: এ কথায় সব এসে গেছে।

খ. হ্যাঁ বহলুল ভাই আপনিই তো বলেন মানুষ জেগে ঘুমায় না। ঘুমের মধ্যেই চোখ খোলা রাখে সত্যিকার মানুষ।

ক. হ্যা আসলেও তাই। তা  শ্রোতা বন্ধুরা এবারে আসর গুটিয়ে নেয়ার পালা। সবাই সত্য ও সুন্দরের পক্ষে থাকবো এবং জালেম ও জুলুমের বিরুদ্ধে, মোনাফিক এবং বিশ্বাসঘাতকদের বিরুদ্ধে আমরা সবাই একযোগে রুখে দাঁড়াবো এ কামনা করে আজ এখানেই বিদায় চাইছি। #

ট্যাগ

মন্তব্য