ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২০ ১৬:১৩ Asia/Dhaka
  • পত্রপত্রিকার পাতার গুরুত্বপূর্ণ খবর
    পত্রপত্রিকার পাতার গুরুত্বপূর্ণ খবর

সুপ্রিয় পাঠক/শ্রোতা: রেডিও তেহরানের প্রাত্যহিক আয়োজন কথাবার্তার আসরে স্বাগত জানাচ্ছি আমি গাজী আবদুর রশীদ। আশা করছি আপনারা প্রত্যেকে ভালো আছেন। আজ ১৪ ফেব্রুয়ারি শুক্রবারের কথাবার্তার আসরের শুরুতে ঢাকা ও কোলকাতার গুরুত্বপূর্ণ বাংলা দৈনিকগুলোর বিশেষ বিশেষ খবরের শিরোনাম তুলে ধরছি।

বাংলাদেশের শিরোনাম:

  • খালেদার মুক্তির ব্যাপারে কাদেরকে ফখরুলের ফোন-দৈনিক ইত্তেফাক
  • ‘দেশের বারোটা বাজুক আর তেরোটা বাজুক তাতে তাদের কী আসে যায়-রিজভী-দৈনিক যুগান্তর
  • অপরাধের স্বাভাবিকীকরণ উদ্বেগজনক-ধর্ষণের কি প্রতিকার নেই সম্পাদকীয়-দৈনিক প্রথম আলো
  • মানবপাচারে ১৪০০ কোটি টাকার কারবার-কুয়েত থেকে লাপাত্তা বাংলাদেশি এমপি -দৈনিক মানবজমিন
  • করোনাভাইরাস: চীনের প্রেসিডেন্টকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চিঠি-বাংলাদেশ প্রতিদিন
  • কাপ্তাই হ্রদে পিকনিকের নৌকা ডুবে ৫ নারীর মৃত্যু -দৈনিক সমকাল

ভারতের শিরোনাম:

  • পুলওয়ামা কাণ্ডের বর্ষপূর্তি: কোথা থেকে এসেছিল বিস্ফোরক, এখনও অন্ধকারে NIA-দৈনিক সংবাদ প্রতিদিন
  • ট্রাম্পের সফরে কতটা লাভবান হবে ভারতের বাণিজ্য, সংশয়ে কূটনৈতিক মহল-দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকা
  • পুলওয়ামা হামলায় কে লাভবান হল? বর্ষপূর্তিতে মোদিকে তীব্র কটাক্ষ রাহুলের  -দৈনিক আজকাল
  • করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা প্রায় ১৫০০, আক্রান্তের সংখ্যা ছুঁল প্রায় ৬৪ হাজার-দৈনিক আজকাল

পাঠক/শ্রোতা ! এবারে চলুন, বাছাইকৃত কয়েকটি খবরের বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক। প্রথমেই বাংলাদেশের কয়েকটি খবরের দিকে নজর দেব।

খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়ে ফখরুল সাহেব আমার সঙ্গে কথা বলেছেন’-কাদের-দৈনিক ইত্তেফাক/মানবজমিন

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আমাকে ফোন করে খালেদা জিয়ার মুক্তির ব্যাপারে আলোচনা করেছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে জানাতে বলেছেন, আমি প্রধানমন্ত্রীকে জানিয়েছি।’ তবে খালেদা জিয়ার মুক্তি চেয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে আবেদনের বিষয়ে তার কিছু জানা নেই বলে জানিয়েছেন তিনি।

আজ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তির বিষয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেব আমার সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছেন, আলাপ হয়েছে। তাদের দলের পক্ষ থেকে তিনি খালেদা জিয়ার মুক্তি চেয়েছেন। আমি যেন বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করি।

কাদের বলেন, খালেদা জিয়া যে মামলায় কারাগারে রয়েছেন তা হচ্ছে দুর্নীতির মামলা। এটা কোনো রাজনৈতিক মামলা নয়। রাজনৈতিক মামলা হলে সরকার বিবেচনা করতে পারতো।

‘দেশের বারোটা বাজুক আর তেরোটা বাজুক তাতে তাদের কী আসে যায়’-দৈনিক যুগান্তর

দেশের সর্বস্তরে দুর্নীতি ও লুটপাটের অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। ব্যাংকিং সেক্টরে লুটপাতের চিত্র তুলে ধরে তিনি অর্থমন্ত্রীর কড়া সমালোচনা করেছেন। বলেছেন, দেশের বারোটা বাজুক আর তেরোটা বাজুক তাতে তাদের কী আসে যায়? শুক্রবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।একটি জাতীয় দৈনিকের অনুসন্ধানী প্রতিবেদনের কথা তুলে ধরে রিজভী বলেন, বিদেশে রাজকীয় জীবনে শতাধিক ব্যাংক লুটেরা। পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রণ করতে না পারায় বাণিজ্যমন্ত্রীর কড়া সমালোচনা করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেছেন, বানিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, পেঁয়াজের দাম স্থিতিশীল হতে আরও কিছুটা সময় লাগবে। বাণিজ্যমন্ত্রীকে বলতে চাই– বৈশাখ গেল, জৈষ্ঠ্য গেল, দেখতে দেখতে পৌষ-মাঘ সবই গেল, কিন্তু পেঁয়াজের দাম কমল কই?

মানবপাচারে ১৪০০ কোটি টাকার কারবার-কুয়েত থেকে লাপাত্তা বাংলাদেশি এমপি-দৈনিক মানবজমিন

কুয়েতে মানবপাচারে হাজার কোটি টাকার কারবারে অভিযুক্ত হিসেবে সংসদ সদস্য কাজী শহীদ ইসলাম পাপুলের নাম এসেছে। দেশটির ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট সিআইডির অভিযানের মুখে বাংলাদেশের এই এমপি কুয়েত ছেড়েছেন। মানবপাচারকারী সিন্ডিকেটগুলোর বিরুদ্ধে কুয়েত সরকার সাঁড়াশি অভিযান শুরু করেছে। অভিযান নিয়ে কুয়েতের সংবাদ মাধ্যমগুলো সিরিজ রিপোর্ট   করছে। সেখানে ওই এমপি ছাড়াও আরও দুজনের নাম এসেছে। বাংলাদেশ মিশন বলছে, এমপিকে নিয়ে রিপোর্ট প্রকাশের পর কুয়েত সিআইডিতে তারা তাৎক্ষণিক যোগাযোগ করেছেন। সিআইডি থেকে মারাতিয়া কুয়েতি গ্রুপ অব কোম্পানীজ এর সত্বাধিকারী কাজী শহীদ ইসলাম পাপুলের সম্পৃক্ততার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। তিনি লক্ষীপুর-২ আসনের এমপি।

অপরাধের স্বাভাবিকীকরণ উদ্বেগজনক-ধর্ষণের কি প্রতিকার নেই-দৈনিক প্রথম আলোর সম্পাদকীয়

ধর্ষণসহ নারীর প্রতি সব ধরনের সহিংস অপরাধের বিরুদ্ধে অত্যন্ত কঠোর আইন থাকা সত্ত্বেও বাংলাদেশে ধর্ষণের প্রবণতা কেন রোধ করা সম্ভব হচ্ছে না, তা এক গভীর প্রশ্ন। সংবাদমাধ্যমে প্রতিদিন অনেক ধর্ষণের খবর প্রকাশিত হচ্ছে, প্রকাশিত হচ্ছে না এমন ঘটনার সংখ্যা কত হতে পারে, তা অনুমান করাও সম্ভব নয়। তবে নিশ্চিতভাবেই অনুভব করা যাচ্ছে, এই সমাজ পুরোনো ও দুরারোগ্য ব্যাধির মতো ধর্ষণপ্রবণতা বয়ে চলেছে। উদ্বেগের বিষয় হলো, দেশজুড়ে ধর্ষণ এমন দৈনন্দিন ও সহজে–সংঘটিত অপরাধ হিসেবে বিস্তার লাভ করেছে যে এর একধরনের স্বাভাবিকীকরণ ঘটেছে বলে মনে হতে পারে। আইন ও সালিশ কেন্দ্রের ২০১৯ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত বছর সারা দেশে মোট ১ হাজার ৪১৩ জন নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছে; তাদের মধ্যে ৭৬ জনকে ধর্ষকেরা ধর্ষণের পরে হত্যা করেছে।

করোনাভাইরাস: চীনের প্রেসিডেন্টকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চিঠি-দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন

চীনে করোনাভাইরাসে ব্যাপক প্রাণহানির ঘটনায় শোক জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংকে পাঠানো এক শোকবার্তায় প্রধানমন্ত্রী দ্রুত সময়ের মধ্যে দেশটি এ সংকট কাটিয়ে উঠতে পারবে বলেও আশা প্রকাশ করেন। এতে তিনি ভাইরাসের আক্রমণে স্বজন হারানো চীনা পরিবারগুলোর প্রতিও সমবেদনা জানান। চীন সরকার কর্তৃক দেশটিতে অবস্থানরত বাংলাদেশি নাগরিকদের সঠিকভাবে সেবা প্রদানেরও প্রশংসা করেন প্রধানমন্ত্রী। পাশাপাশি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর আয়োজনে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং-কে নিমন্ত্রণ জানান শেখ হাসিনা।

এবার ভারতের কয়েকটি খবর তুলে ধরছি

করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা প্রায় ১৫০০, আক্রান্তের সংখ্যা ছুঁল প্রায় ৬৪ হাজার-দৈনিক আজকাল

করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বাড়ছেই

রোজ রেকর্ড ভাঙছে। করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা প্রায় ১৫০০ ছুঁতে চলেছে। আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে বেড়ে হয়েছে প্রায় ৬৪ হাজার। 

বৃহস্পতিবার মারণ ভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে আরও ১২১ জনের। এর ফলে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৪৮৩। তবে ওই একদিনে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা অনেক বেড়েছে। বৃহস্পতিবার চীনে আরও ৫,০৯০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

এতদিন শুধুমাত্র বিশেষ ‘কিট’ দিয়ে করা পরীক্ষায় শরীরে ভাইরাস ধরা পড়লেই সেই ব্যক্তিকে আক্রান্ত হিসেবে ঘোষণা করা হচ্ছিল। কিন্তু এই কিটের প্রবল সঙ্কট দেখা দেওয়ায় চীন প্রশাসন বুধবার থেকে করোনা ভাইরাস পরীক্ষার নতুন নিয়ম চালু করেছে। এখন থেকে সিটি স্ক্যানের রিপোর্টকেও গ্রাহ্য করা হবে। এই ব্যবস্থা চালুর পর শুধুমাত্র ইউহান থেকেই কয়েক হাজার মানুষের আক্রান্ত হওয়ার খবর মিলেছে। একধাক্কায় বেড়ে গিয়েছে মৃতের সংখ্যাও। উদ্বেগের বিষয় হল, এখনও পর্যন্ত শুধুমাত্র একটি শহর থেকে পরিবর্তিত পরিসংখ্যান এসেছে। অন্য শহরগুলি তথ্য ‘আপডেট’ করার পর পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে কেউ বুঝে উঠতে পারছেন না। স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে প্রশাসনের এতদিনের কার্যকলাপ নিয়ে।

নতুন পরিসংখ্যান সামনে আসার পর বিধিনিষেধ আরও কড়া করে দিয়েছে চীন সরকার। হুবেই প্রবেশে জারি করা হয়েছে নতুন নির্দেশিকা। ভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করছেন এমন মানুষ ছাড়া বাকিদের ঘর থেকে বেরোনো একেবারে নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়েছে। প্রশাসনিক নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করলে তাঁদের হেফাজতে নেবে পুলিশ।

‘আপনারা আগে যাদবপুর সামলান’, বিধানসভায় বামেদের তুলোধোনা মমতার-দৈনিক সংবাদ প্রতিদিন

লোকসভা থেকে একাধিক রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন। এমনকী বাংলাতেও রক্তক্ষরণ অব্যাহত বামেদের। সদ্য সমাপ্ত দিল্লির নির্বাচনে নোটার থেকেও কম ভোট পেয়েছে সিপিআই ও সিপিএম। এবার তাই নিয়ে বিধানসভায় বামেদের চরম আক্রমণ শানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বললেন, ‘ভবানীপুর নিয়ে আমি দেখে নেব, আপনারা আগে যাদবপুর সামলান।’ বামেদের নিজেদের চরকায় তেল দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। যা নিয়ে শুক্রবার হট্টগোল হয় বিধানসভায়।কী বলেছেন এদিন মমতা? তাঁর কটাক্ষ, ‘সবাই সবার মতো রাজনৈতিক বক্তব্য রেখে অপপ্রচার করেছেন। রাজনৈতিক দূষণ তাদের মধ্যে এত গ্রাস করেছে তারা সব ভুলে গিয়েছে। আমার দলের ফলাফল নিয়ে বামেদের ভাবতে বলিনি।

পুলওয়ামা কাণ্ডের বর্ষপূর্তি: কোথা থেকে এসেছিল বিস্ফোরক, এখনও অন্ধকারে NIA-দৈনিক সংবাদ প্রতিদিন

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯। এদিনে রক্তাক্ত হয়েছিল ভূস্বর্গ। পুলওয়ামার অবন্তীপুরায় ৪৪ নম্বর জাতীয় সড়কে বিস্ফোরক বোঝাই গাড়ি ধাক্কা মেরেছিল সিআরপিএফ জওয়ানদের বাসে। ভয়াবহ বিস্ফোরণে মৃত্যু হয় ৪০ জন জওয়ানের। নিরাপত্তার ফাঁক গলে কোথা থেকে এসেছিল এত বিস্ফোরক, ঘটনার একবছর পরেও অন্ধকারে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএ।পুলওয়ামা কাণ্ডের একবছর পরও NIA এখনও চার্জশিট দাখিল করতে পারেনি। তাঁদের বক্তব্য, অভিযুক্তরা সকলেই মৃত।

পুলওয়ামা হামলায় কে লাভবান হল? বর্ষপূর্তিতে মোদিকে তীব্র কটাক্ষ রাহুলের  -দৈনিক আজকাল

ট্রাম্পের সফরে কতটা লাভবান হবে ভারতের বাণিজ্য, সংশয়ে কূটনৈতিক মহল-দৈনিক আনন্দবাজার

গত বছরই দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যে ভারতের বিশেষ সুবিধা কেড়ে নিয়েছে আমেরিকা। এ বার মার্কিন প্রেসিডেন্টের সফরে অন্যতম আলোচনার বিষয়বস্তু হয়ে উঠতে চলেছে সেই বিষয়। সেই বিশেষ মর্যাদা ফেরত নিয়ে দৌত্য না করলেও বিশেষ কিছু পণ্যের ক্ষেত্রে ট্যারিফ কমানোর আর্জি জানাতে চলেছে ভারত। ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভারত সফরের আগে নয়াদিল্লি-ওয়াশিংটন কথা চালাচালি চলছে। তবে ট্রাম্পের সফরে বড় কোনও বাণিজ্য চুক্তির সম্ভাবনা নেই বলেই মনে করছে দু'দেশের কূটনৈতিক মহল।

১০ দিন পরেই প্রথম বারের জন্য ভারতে আসছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। দু'দিনের সফরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর রাজ্য গুডরাত সফর ছাড়াও নয়াদিল্লিতে একাধিক বৈঠক করবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।#

পার্সটুডে/গাজী আবদুর রশীদ/১৪
 

ট্যাগ

মন্তব্য