এপ্রিল ০৯, ২০২০ ১৭:৩৭ Asia/Dhaka
  • কথাবার্তা: কনভেনশন সিটিতে ২০০০ শয্যার আইসোলেশন সেন্টার

সুপ্রিয় পাঠক/শ্রোতা: ৯ এপ্রিল বৃহস্পতিবারের কথাবার্তার আসরে স্বাগত জানাচ্ছি আমি বাবুল আখতার। আশা করছি আপনারা প্রত্যেকে ভালো আছেন। আসরের শুরুতে ঢাকা ও কোলকাতার গুরুত্বপূর্ণ বাংলা দৈনিকগুলোর বিশেষ বিশেষ খবরের শিরোনাম তুলে ধরছি।

বাংলাদেশের শিরোনাম:

  • রাজধানীজুড়ে ছড়াচ্ছে করোনা সংক্রমণ-দৈনিক প্রথম আলো
  • কনভেনশন সিটিতে ২০০০ শয্যার আইসোলেশন সেন্টার: দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন
  • খুনি মাজেদের প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজ, ফাঁসি যেকোনো দিন-দৈনিক ইত্তেফাক
  • পিপিইর অভাবে ‘বিন ব্যাগ’ পরা সেই ৩ নার্স করোনায় আক্রান্ত-দৈনিক মানবজমিন
  • ফাঁসি দেয়ার আগে মাজেদকে জিজ্ঞাসাবাদ করুন, অনেক কিছুই বেরিয়ে আসবে: নাসিম-দৈনিক যুগান্তর
  • তারেক রহমানের কোনো ইমেইল আইডি নেই,দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে: রিজভী-দৈনিক নয়া দিগন্ত
     

ভারতের শিরোনাম:

  • ১৫ এপ্রিল থেকে সাত দিনের জন্য দূরপাল্লার ট্রেন চালানোর প্রস্তুতি নিয়ে রাখছে রেল -দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকা
  • লকডাউনের ফলে দেশে তেলের চাহিদা কমে গিয়েছে ৭০ শতাংশ-দৈনিক আজকাল
  • আগামী এক সপ্তার মধ্যে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৭ হাজার ছুঁতে পারে-দৈনিক আজকাল

রাজধানীজুড়ে ছড়াচ্ছে করোনা সংক্রমণ-দৈনিক প্রথম আলো

করোনাভাইরাস সংক্রমণের চিহ্নিত পাঁচটি ক্লাস্টারের (একটি জায়গায় কম দূরত্বের মধ্যে অনেক রোগী) দুটি রাজধানী ঢাকায়। কিন্তু রাজধানীর ওই দুটি এলাকাতেই কেবল সংক্রমণ সীমিত নেই। এখন প্রায় পুরো রাজধানীতে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ছে। গতকাল বুধবার পর্যন্ত রাজধানীর ৪৬টি এলাকায় সংক্রমণ পাওয়া গেছে। দেশে চিহ্নিত মোট রোগীর ৫৬ শতাংশই রাজধানীর বাসিন্দা।

ঢাকা মহানগরীর বাইরে ঢাকা জেলাসহ ২২টি জেলায় সংক্রমণ ধরা পড়েছে। গতকাল পর্যন্ত করোনাভাইরাসে সংক্রমিত ২১৮ ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে ১২৩ জন (৫৬ দশমিক ৪২ শতাংশ) ঢাকা মহানগরীর বাসিন্দা। সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) দেওয়া তথ্যে এই চিত্র পাওয়া গেছে।

প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান

করোনাভাইরাসের বর্তমান পরিস্থিতিতে মানুষের সহায়তায় দেশের ৬৯টি বেসরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ২৪ ঘণ্টা প্রস্তুত আছে। আজ বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনাভাইরাস-সংক্রান্ত ব্রিফিংয়ে যুক্ত হয়ে এ কথা বলেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী মো. এনামুর রহমান।

আজকের এ ব্রিফিংয়ের পর প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, ‘জনগণ একটু বিভ্রান্তিতে ছিল। আজ সকালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ডেকে এই অ্যাডভাইস করা হয় যেন আমরা চিকিৎসা দেওয়ার বিষয়টি জানাই। এ ঘোষণা দিলে সবাই আসবে।’

এনামুর রহমান বলেন, ‘আজ আমাদের বলা হয়েছে, পরবর্তীতে যদি সংক্রমণের সংখ্যা বাড়ে, তবে তখন আমাদের হাসপাতালগুলো ব্যবহার করা হবে। আমরা বলেছি ওকে।’

বসুন্ধরা কনভেনশন সিটিতে ২,০০০ শয্যার আইসোলেশন সেন্টার: দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন

বসুন্ধরা কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় ২০০০ শয্যার আইসোলেশন সেন্টার তৈরি করার কাজ চলছে। আগামী ৮ থেকে ১০ দিনের মধ্যে এটি প্রস্তুত করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালিক। 

বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটায় মহাখালীর ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (এমআইএস) বিভাগের মিলনায়তনে ‘করোনাভাইরাস সংক্রান্ত’ অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে নিজ বাস ভবন থেকে যুক্ত হয়ে তিনি এ তথ্য জানান। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপের সদিচ্ছার কারণেই তাদের কনভেনশন সিটিতে ২০০০ শয্যার আইসোলেশন সেন্টার তৈরি করা সম্ভব হচ্ছে। 

করোনা রোগীদের চিকিৎসার জন্য আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় ৫ হাজার শয্যার হাসপাতাল করার ঘোষণা দেয় দেশের বৃহত্তম এ শিল্পগোষ্ঠী। হাসপাতাল তৈরির কাজ চলমান। উল্লেখ্য, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় একজনের মৃত্যু হয়েছে। এই নিয়ে দেশে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২১ জনে। আর নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১১২ জন। মোট আক্রান্ত ৩৩০জন।

ফাঁসি দেয়ার আগে মাজেদকে জিজ্ঞাসাবাদ করুন, অনেক কিছুই বেরিয়ে আসবে: নাসিম-দৈনিক যুগান্তর

দীর্ঘদিন পালিয়ে থাকার পর ধরা পড়া বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার আসামি বরখাস্ত ক্যাপ্টেন আব্দুল মাজেদের ফাঁসির রায় কার্যকর করার আগে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের দাবি জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের সমন্বয়ক মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেছেন, এই খুনির ফাঁসির রায় অবশ্যই কার্যকর করা হবে। তবে তার আগে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বঙ্গবন্ধু ও জেলখানায় চার নেতা হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যে কারা ছিল তার আরও তথ্য জানা যাবে। জিজ্ঞাসাবাদে জানা যাবে বঙ্গবন্ধুর বাকি খুনিরা কোথায় পালিয়ে আছে সেটাও বৃহস্পতিবার এক ভিডিও বার্তায় জাতীয় চার নেতার অন্যতম ক্যাপ্টেন মনসুর আলীর ছেলে মোহাম্মদ নাসিম এ দাবি করেন।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের সমন্বয়ক মোহাম্মদ নাসিম

ভিডিও বার্তায় নাসিম বলেন, করোনাভাইরাসের মহাবিপর্যয়ের মধ্যে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার আত্মস্বীকৃত খুনি মাজেদের গ্রেফতার দেশবাসীর জন্য একটি সুসংবাদ বয়ে এনেছে। আমরা আশ্বস্ত হয়েছি যে দীর্ঘ এক যুগ পরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী খুনিকে গ্রেফতার করেছে। এজন্য তাদের ধন্যবাদ জানাই। আমি মনে করি এই খনি শুধু জাতির জনককে হত্যা করেননি এই খুনি জেলখানায় ঢুকে জাতীয় চার নেতা হত্যাকাণ্ডে অংশ নিয়েছিল।

খুনি মাজেদের প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজ, ফাঁসি যেকোনো দিন-দৈনিক ইত্তেফাক

বঙ্গবন্ধুর খুনি মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আব্দুল মাজেদের প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। এর ফলে তার ফাঁসি হতে পারে যে কোনো দিন। বৃহস্পতিবার সকালে রাষ্ট্রপতির ক্ষমা নাকোচের চিঠি কারাগারে পৌঁছেছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কারা প্রশাসনের এক শীর্ষ কর্মকতা। তিনি বলেছেন, ফাঁসি কিভাবে এবং কোথায় সম্পন্ন হবে, তা বিকালে জানা যাবে। কারা প্রশাসনের এই শীর্ষ কর্মকতা আগের পাঁচ খুনির ফাঁসি কার্যকরের সময়ও উপস্থিত ছিলেন।

বঙ্গবন্ধুর খুনি মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আব্দুল মাজেদ

জানা যায়, আদালত থেকে আসা মৃত্যু পরোয়ানা কারা কর্তৃপক্ষ মাজেদের কাছে দেয়। সেটি পাওয়ার পর রাতেই মানবিক বিবেচনায় রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চান খুনি আব্দুল মাজেদ। এর প্রেক্ষিতে রাতেই সেই আবেদন রাষ্টপতির কাছে প্রেরণ করা হয়। বৃহস্পতিবার সকালে রাষ্ট্রপতি তার সেই প্রাণভিক্ষার আবেদন নাকচ করে দেন। প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজ হওয়ার পর এখন শুধু ফাঁসির অপেক্ষা আব্দুল মাজেদের।

কারা কর্তৃপক্ষ জানায়, আবদুল মাজেদকে কবে ফাঁসি দেওয়া হবে তা এখনো নিশ্চিত নয়। তবে তার ফাঁসির পথে আর কোনো বাধা নেই। এ বিষয়ে আজ বিকালে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হতে পারে।

পিপিইর অভাবে ‘বিন ব্যাগ’ পরা সেই ৩ নার্স করোনায় আক্রান্ত-দৈনিক মানবজমিন

ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম (পিপিই) না থাকায় ময়লা ফেলার ব্যাগ বা ‘বিন ব্যাগ’ বিন ব্যাগ পরে কাজ করা তিন নার্স করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। সম্প্রতি তাদের বিন ব্যাগ পরে কাজ করার ছবি বিশ্বজুড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাড়া ফেলে। বুধবার রাতে জানা গেছে, তারা সকলেই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। গত সপ্তাহে উত্তর লন্ডনের এক পরীক্ষাকেন্দ্রে তাদের মধ্যে ভাইরাসটির উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়।

এ খবর দিয়েছে দ্য ডেইলি মেইল।খবরে বলা হয়, বৃটেনে স্বাস্থ্যকর্মীদের মধ্যে করোনা আক্রান্তের হার বাড়ছে। গত সপ্তাহে দেশের প্রথম হাসপাতাল হিসেবে নর্থউইক পার্ক হাসপাতাল করোনা রোগীদের চাপ সামলাতে না পেরে সংকটময় পরিস্থিতির ঘোষণা দিয়েছে। হাসপাতালটির একটি ওয়ার্ডের অর্ধেকের বেশি কর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এজন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে পর্যাপ্ত পিপিই সরবরাহ না করতে পারায় দায়ী করা হয়েছে।

তারেক রহমানের কোনো ইমেইল আইডি নেই,দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে: রিজভী-দৈনিক নয়া দিগন্ত

জনগণের স্বাস্থ্যসেবার কথা বিবেচনা করে সরকার স্বাস্থ্যখাতের জন্য কোনো উন্নয়ন করেনি বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, বর্তমান করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে দেশের হাসাতালগুলোর দিকে তাকালে বোঝা যায় দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। বিনা চিকিৎসায় মারা যাচ্ছে মানুষ। লাশ পড়ে থাকছে পথে ঘাটে।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী

তিনি বলেন, সরকার ঢাকঢোল পিটিয়ে কর্মহীন অসহায় মানুষের জন্য ত্রাণের কথা বললেও শত শত বস্তা রিলিফের খাদ্যসামগ্রী পাওয়া যাচ্ছে সরকারি দলের নেতাদের বাসায় বাসায়। আসলে যে কোনো ধরণের জাতীয় দুর্যোগ হলেই আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের হয়ে যায় পোয়াবারো। অবিলম্বে দুস্থ মানুষের মাঝে সরকারি ত্রাণ সহায়তা দেয়ার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিয়োগ করার জন্য দাবি জানাচ্ছি। এছাড়া বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নামে ভুয়া ইমেইল আইডি খুলে প্রতারণা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন রিজভী।

এবার ভারতের কয়েকটি খবর তুলে ধরছি

দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকার প্রধান খবরে লেখা হয়েছে, ১৫ এপ্রিল থেকে সাত দিনের জন্য দূরপাল্লার ট্রেন চালানোর প্রস্তুতি নিয়ে রাখছে রেল।

১৪ এপ্রিলের পর এক ধাক্কায় উঠছে না দেশজোড়া লকডাউন। বুধবার প্রধানমন্ত্রীর ডাকা সর্বদলীয় বৈঠক থেকে এমন ইঙ্গিত স্পষ্ট। তবে পরিস্থিতি বুঝে লকডাউন কোনও কোনও ক্ষেত্রে আংশিক প্রত্যাহার হবে কি না, তার ভাবনাচিন্তাও চলছে।

সেই ভাবনা থেকেই, হঠাৎ-লকডাউনে দূরে আটকে পড়াদের জন্য ট্রেন চালানোর প্রস্তুতি নিয়ে রাখছে ভারতীয় রেল। পূর্ব এবং দক্ষিণ-পূর্ব রেলও রয়েছে এই তালিকায়। সম্ভাব্য পরিষেবার জন্য রেলের নানা বিভাগের কর্মীদের তৈরি থাকতে বলা হয়েছে। তবে এই প্রস্তুতি শুধুই দূরপাল্লার ট্রেনের জন্য। পূর্ব রেল সূত্রে খবর, হাওড়া-শিয়ালদহ-সহ বিভিন্ন শাখায় সামান্য কয়েকটি লোকাল ট্রেন চালানোর প্রস্তুতি নিয়ে রাখা হলেও, তা দরকার মতো শুধুমাত্র রেলকর্মী এবং বিশেষ অনুমতিপ্রাপ্তদের জন্য।

লকডাউনের ফলে দেশে তেলের চাহিদা কমে গিয়েছে ৭০ শতাংশ-দৈনিক আজকাল-দৈনিক আজকালের এ শিরোনামের খবরে লেখা হয়েছে,

বিশ্ববাজারে তেলের তৃতীয় বৃহত্তম গ্রাহক ভারত। আর কোভিড–১৯–এর জন্য ভারতই সব থেকে বড় লকডাউন করেছে। যার ফলে আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের তৃতীয় বৃহত্তম গ্রাহক সেই ভারতেই তেলের চাহিদা নেমে এসেছে ৭০ শতাংশে। দেশের তেল সংশোধনাগারের কর্তাদের সমীক্ষায় এমনটাই ধরা পড়েছে।চাহিদা এভাবে নামার ফলে তেল উৎপাদনকারী কোম্পানিগুলো বিশ্বের শক্তিশিল্পগুলো চালানোর জন্য জোগানে রাশ টানতে পারে বলে মনে করছে দেশীয় তেল সংশোধনকারী কোম্পানিগুলো। কোম্পানির কর্তাদের হিসেব অনুযায়ী, গত মার্চে ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণার পর যতটা তেল ব্যবহৃত হয়েছে বা কিনেছেন গ্রাহকরা তা গত বছরের থেকে ৫০ শতাংশ কম। যার ফলে দিন প্রতি চাহিদা ৩.‌১ মিলিয়ন ব্যারেল কমেছে। এবার লকডাউন বাড়লে এই চাহিদা আরও কমবে বলে অনুমান তাঁদের। তাহলে শুধু ভারতেই আগামী দিনে তেলের চাহিদা কমলে দিন প্রতি ১০ মিলিয়ন ব্যারেল তেলের জোগান হবে না

করোনা মড়কের জন্য দায়ী দিল্লি পুলিশ’, তোপ মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর-দৈনিক সংবাদ প্রতিদিন

করোনা ভাইরাসের প্রকোপে টালমাটাল অবস্থা মহারাষ্ট্রের।ওই রাজ্যে কিছুতেই থামছে না মহামারির প্রকোপ। এবার গোটা পরিস্থিতির দায় দিল্লি পুলিশের ঘাড়ে চাপালেন মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ। 

সংবাদ সংস্থা এএনআইকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে দেশমুখ বলেন, “করোনা মহামারি রুখতে যথাসাধ্য চেষ্টা করছে প্রশাসন। তবে দিল্লি পুলিশের জন্যই মহারাষ্ট্র-সহ অন্য রাজ্যে নতুন করে সমস্যা দেখা দিয়েছে।” তিনি আরও অভিযোগ করেন, নিজামুদ্দিনের মতোই মুম্বইয়ের ভাসাই এলাকায় মার্চের ১৫ ও ১৬ তারিখ অনুষ্ঠান করতে চেয়েছিল তবলিঘি জামাত। তবে প্রশাসনের তরফে অনুমতি দেওয়া হয়নি। কিন্তু দিল্লি পুলিশ মারকাজ করার অনুমতি দেয় বলেই করোনার মামলা বেড়ে গিয়েছে। 

ভারতে করোনার প্রভাব সবচেয়ে বেশি পড়েছে মহারাষ্ট্রে। গত ২৪ ঘণ্টায় ওই রাজ্যে নতুন করে আরও ১৬২ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। এর ফলে মহারাষ্ট্রে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১হাজার ২৯৭। উল্লেখ্য, গত মাসে দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাজ থেকে ফেরা তবলিঘি জামাতের সদস্যদের ঘিরে গোটা দেশে ছড়িয়েছে করোনা ত্রাস। অসম-সহ বেশ কয়েকটি রাজ্যে জামাতিদের শরীরে পাওয়া গিয়েছে মারণ রোগের জীবাণু। সরকার থেকে বারবার আবেদন করা হলেও অনেকেই আত্মগোপন করেছে। সরকারি পরিসংখ্যান বলছে, দেশে মোট করোনা আক্রান্তের ৩০ শতাংশ জনসংখ্যা তবলিঘি জামাতের ধর্মীয় সমাবেশে হাজির ছিল। ১৭ রাজ্যে ছড়িয়ে রয়েছে এই আক্রান্তরা।  সমস্ত বিধিনিষেধ শিকেয় তুলে বিপদ বাড়িয়ে তুলছে তারা।   

শ্রোতাবন্ধুরা! কথাবার্তার আজকের আসর এখানেই গুটিয়ে নিচ্ছি। আবারও কথা হবে আগামী আসরে। ততক্ষণ সবাই ভালো ও সুস্থ থাকুন।

পার্সটুডে/বাবুল আখতার/৯

 

 

 

-

 

 

ট্যাগ

মন্তব্য