আগস্ট ০৯, ২০২০ ১৮:০১ Asia/Dhaka

প্রিয় শ্রোতাবন্ধুরা, আপনাদের সবাইকে অনেক অনেক প্রীতি ও শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করছি চিঠিপত্রের আসর 'প্রিয়জন'। প্রত্যেক আসরের মতো আজও অনুষ্ঠান উপস্থাপনায় রয়েছি আমি নাসির মাহমুদ, আমি আকতার জাহান এবং আমি আশরাফুর রহমান।

আশরাফুর রহমান: আসরের শুরুতেই আমি বিশ্বনবীর একটি বাণী শোনাতে চাই। তিনি বলেছেন, ‘তোমাদের আত্মীয়তার সম্পর্ককে জোড়া লাগাও যদি তা সালাম দেয়ার মাধ্যমেও হয়

আকতার জাহানখুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি হাদিস শুনলাম আমরা সবাই আত্মীয়তার সম্পর্ক রক্ষায় সচেষ্ট হব- কামনায় চিঠিপত্রের দিকে নজর দিচ্ছি আসরের প্রথম চিঠিটি এসেছে বাংলাদেশের ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার ভালোবাসি রেডিও শ্রোতা ক্লাব থেকে। আর লিখেছেন এম. জামাল আহমেদ সুবর্ণ।

এ চিঠিতে তিনি গত ১১ জুলাই তারিখে প্রচারিত ইরান ভ্রমণ অনুষ্ঠানে ইয়াযদ জামে মসজিদ সম্পর্কিত আলোচনা খুব ভালো লেগেছে বলে জানিয়েছেন। এরপর লিখেছেন, “একটি কথা না বললেই নয়, তাহলো রেডিও তেহরানের বর্তমানে নতুন আঙ্গিকে সাজানো অনুষ্ঠান 'প্রিয়জন' আমিসহ সকল শ্রোতার কাছে খুব ভালো লাগছে। তবে, ঢাকার বাড্ডা এলাকা থেকে রেডিও তেহরানের অনুষ্ঠান শর্টওয়েভ মাধ্যমে ভালো শোনা যাচ্ছে না। আশাকরি এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষ নজর রাখবেন।”

নাসির মাহমুদ: ভাই জামাল আহমেদ সুবর্ণ, চিঠি ও মতামতের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আর হ্যাঁ, শ্রবণমান উন্নয়নে আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। সম্ভব হলে শ্রবণমান রিপোর্ট পাঠাবেন।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে মুর্শিদাবাদ জেলার বারুইপাড়া থেকে নাফিসা খাতুন পাঠিয়েছেন পরের মেইলটি। রেডিও তেহরানের সকল শ্রোতা ও কলাকুশলীকে আন্তরিক প্রীতি ও শুভেচ্ছা জানানোর পর তিনি লিখেছেন, আমি রেডিও তেহরান বাংলা বিভাগের নিয়মিত শ্রোতা। মধ্যপ্রাচ্যের ইতিহাস, ঐতিহ্য ও প্রাচুর্যে ভরপুর একটি দেশ ইরান। আমরা উপমহাদেশের লোকেরা এই দেশটি সম্বন্ধে খুব কম জানতে পারি কিন্তু জানার আগ্রহ অনেক। আর তাই রেডিও তেহরানের মাধ্যমে ইরানকে নানাভাবে জানতে চেষ্টা করি।

আশরাফুর রহমান: এরপর এ শ্রোতাবোন লিখেছেন, "ইরানের পণ্য সামগ্রী" ইরানকে জানার একটি সুন্দর অনুষ্ঠান। এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ইরানে উৎপাদিত নানা সামগ্রী, ফল, মৎস, খনিজ প্রভৃতি বিষয়ে জানতে পারি। বিভিন্ন সময়ে আশ্চর্য সব জিনিসের কথা জানতে পেরে অবাক হয়ে যাইসবশেষে তিনি ইরানের বিখ্যাত জাফরান নিয়ে আলোচনা করার অনুরোধ করেছেন।

আকতার জাহান: বোন নাফিসা খাতুন, জাফরান নিয়ে দুই পর্বের অনুষ্ঠানে ইরানের পণ্যসামগ্রী অনুষ্ঠানের প্রথম দিকে প্রচার হয়েছে। আপনি ইচ্ছে করলে আমাদের ওয়েবসাইট থেকে দেখে নিতে পারেন। চিঠি লেখার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আশাকরি আবারো লিখবেন।

বাংলাদেশের যশোর জেলার শার্শা থানার নাভারন রেল বাজার থেকে মো. নুর আলম লিখেছেন পরের চিঠিটি। তিনি জানিয়েছেন, আপনাদের অনুষ্ঠান থেকে কোয়েল পাখি নিয়ে প্রচারিত প্রতিবেদনটি শুনলাম। কোয়েল পাখির গোশত ও ডিমে যে প্রচুর ভিটামিন থাকে তা আগে জানলে আমার মেয়ে নুসরাতকে খাওয়াতাম। আপনাদের প্রতিবেদন শোনার পর থেকে মনের সংকোচ কেটে গেছে।

নাসির মাহমুদ: নুর আলম ভাই ইরানের প্রশংসা করে লিখেছেন, সারা বিশ্বের ভেতর একমাত্র ইরানই মুসলিম দেশগুলোর জন্য সবসময় সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছে এবং জুলুমকারী দেশগুলোর বিরুদ্ধে একমাত্র প্রতিবাদ করে আসছে। এ কারণেই ইরানকে আমার খুব ভালো লাগে। সবশেষে তিনি জানতে চেয়েছেন ইরানে কোন কোন ফলের চাষাবাদ করা হয়।

আশরাফুর রহমান: ইরানে আখরোট, আপেল, কমলা, খেজুর, চেরি, ডালিম, পীচ, আঙ্গুরসহ প্রায় বহু রকমের ফলের চাষাবাদ হয়। প্রশ্ন করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর থানার আলী সাহারদির পাথেয় শ্রোতা সংঘের সভাপতি তাজরীন আহমেদ তমা লিখেছেন পরের চিঠিটি। তিনি লিখেছেন, রেডিও তেহরানকে নির্ভরযোগ্য গণমাধ্যম মনে হয়। তাই এই বেতারের সাথে থাকব আজীবন। ইরান ভ্রমণ অনুষ্ঠানে ইস্ফাহান প্রদেশের কেন্দ্রীয় শহর ইস্ফাহান সম্বন্ধে জেনে ভালো লাগল। সবশেষে এ শ্রোতাবোন একটি প্রশ্ন করেছেন। জানতে চেয়েছেন- ইরানে কয়টি শিশুপার্ক আছে?

আকতার জাহান: ইরানের প্রত্যেক এলাকায় এক বা একাধিক পার্ক আছে। রাজধানী তেহরানেই রয়েছে ছোট-বড় হাজারখানেক পার্ক। এসব পার্কে শিশুরাসহ সবাই বেড়াতে বা শরীরচর্চা করতে যান। আর হ্যাঁ, বড় পার্কগুলোতে শিশুদের খেলাধুলার বিশেষ ব্যবস্থা রয়েছে। 

নাসির মাহমুদ: বেশ কয়েকটি চিঠি পড়া হলো। আসরের এ পর্যায়ে আমরা সরাসরি কথা বলব ভারতের শ্রোতাবন্ধু আজাদ পাওয়ার বিশ্বাসের সঙ্গে।

নাসির মাহমুদ: বগুড়ার চাঁদনী বাজার থেকে মো. সাইফুল ইসলাম পাঠিয়েছেন আসরের এবারের মেইলটি। তিনি লিখেছেন, গত ৯ জুলাইয়ে প্রচারিত ‘রংধনু আসর’ শুরুর পূর্বে বেশ কিছু মূল্যবান কথা বললেন আপনারা। কথাগুলি সত্যিই অনেক মূল্যবান। শুনলাম গল্প 'সুখী মানুষের জামা'। এ গল্পটি শুনতে শুনতে চলে গিয়েছিলাম সেই শৈশবে। চতুর্থ শ্রেণীতে পড়ার সময় তখনকার বাংলা বইয়ে পড়েছিলাম "সুখী মানুষ" নামের এই গল্পটি। গল্পটির শিক্ষা হচ্ছে- ধন সম্পদ আর টাকার মাঝেই সুখ নেই, মনের সুখই হচ্ছে প্রকৃত সুখ। এই আসরে পরিচিত হলাম কিশোরগঞ্জ জেলার বন্ধু আমাদের শাহাদত ভাইয়ের ছেলে শাদমান হোসেন অয়ন-এর সাথে। চমৎকার ছিল তার সাক্ষাৎকারটি। সুন্দর আসরটি উপহার দেয়ার জন্য রেডিও তেহরানকে ধন্যবাদ।

আশরাফুর রহমান: একই অনুষ্ঠানের প্রশংসা করে মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া থানার ইমামপুর প্রহরী শ্রোতা সংঘের সভাপতি আছিয়া আক্তার ইতি পাঠিয়েছেন এই চিঠিটি। তিনি লিখেছেন, গত ৯ জুলাই তারিখে রংধনু আসরের শুরুতেই সুখী হওয়ার উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে লাভবান হলাম। এতে ‘সুখী মানুষের জামা’ শীর্ষক গল্পটি ভালো লাগল। এর অনেক শিক্ষণীয় দিক ছিল- যা সবার উপকারে আসবে।

আকতার জাহান: কিশোরগঞ্জের খড়ম পট্টি থেকে শরিফা আক্তার পান্না পাঠিয়েছেন পরের চিঠিটি। ৭ জুলাই প্রচারিত দর্পন অনুষ্ঠান সম্পর্কে মতামত তুলে ধরতে গিয়ে তিনি লিখেছেন, আমেরিকার জীবাণু অস্ত্র তৈরি ও গবেষণা সম্পর্কে প্রচারিত প্রতিবেদন বলা হলো- পেন্টাগণের ভয়ংকর পরিকল্পনার কথা। আমেরিকা বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও অঞ্চলে প্রায় ২৫টি জীবাণু অস্ত্র গবেষণা কেন্দ্র স্থাপন করেছে। অথচ জীবাণু অস্ত্র নিয়ে গবেষণা ও উৎপাদন করা আন্তর্জাতিক আইনে নিষিদ্ধ। কিন্তু আইনে নিষিদ্ধ হলেও আমেরিকা তা মানছে না। উপরন্তু যুক্তরাষ্ট্রের এসব গবেষণাগার থেকে বিভিন্ন ধরণের রোগ ছড়িয়ে পড়ছে। আমরা এ প্রতিবেদন থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভয়ংকর রূপটা সম্পর্কে জানতে পারলাম। প্রকৃত সত্য তুলে ধরার মাধ্যমে আমেরিকার মুখোশ খুলে দেয়ার জন্যে রেডিও তেহরানের বাংলা বিভাগকে আবারো ধন্যবাদ জানাই।

নাসির মাহমুদ: আমাদের অনুষ্ঠানে সম্পর্কে মতামত জানিয়ে আরও যারা চিঠি লিখেছেন আমি তাদের কয়েকজনের নাম-ঠিকানা জানিয়ে দিচ্ছি।

  • কিশোরগঞ্জের গুরুদয়াল সরকারি কলেজের ভুগোল ও পরিবেশ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোঃ শাহাদত হোসেন
  •  নারায়ণগঞ্জ জেলার আলী সাহারদির উৎস ডিএক্স কর্ণার থেকে এইচ এম তারেক
  • এ,টি, এম,আতাউর রহমান রঞ্জু লিখেছেন 'আলোকিত মানুষ চাই' আন্তর্জাতিক বেতার শ্রোতা ক্লাব, রংপুর থেকে।

আশরাফুর রহমান: রেডিও তেহরানের অনুষ্ঠানে শোনার পর শ্রবণমান রিপোর্ট পাঠিয়েছেন বেশ কয়েকজন শ্রোতা। আমি তাদের পরিচয় তুলে ধরছি।

  •  ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদের মিতালি লিসেনার্স ক্লাব থেকে শিবেন্দু পাল।
  •  ভারতের ছত্তিশগড় থেকে আনন্দ মোহন বাইন এবং
  • বাংলাদেশের ফরিদপুর জেলার বোয়ালখালী উপজেলার ‘ভালবাসি রেডিও শ্রোতা ক্লাব’ থেকে এম জামাল আহমেদ সুবর্ণ

আকতার জাহান: তো যারা চিঠি ও শ্রবণমান রিপোর্ট পাঠিয়েছেন তাদের সবাইকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।

নাসির মাহমুদ: কথা হবে প্রিয়জনের আগামী আসরে। ততক্ষণ ভালো, সুস্থ ও নিরাপদে থাকুন।

পার্সটুডে/আশরাফুর রহমান/৯

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ

মন্তব্য