সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০ ১৯:২৮ Asia/Dhaka

সুপ্রিয় পাঠক/শ্রোতা! ২৬ সেপ্টেম্বর শনিবারের কথাবার্তার আসরে স্বাগত জানাচ্ছি আমি গাজী আবদুর রশীদ। আশা করছি আপনারা প্রত্যেকে ভালো আছেন। আসরের শুরুতে ঢাকা ও কোলকাতার গুরুত্বপূর্ণ বাংলা দৈনিকগুলোর বিশেষ বিশেষ খবরের শিরোনাম তুলে ধরছি। এরপর গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি খবরের বিশ্লেষণে যাবো। বিশ্লেষণ করবেন সহকর্মী সিরাজুল ইসলাম।

বাংলাদেশের শিরোনাম:

  • চীনের টিকার জরুরি ব্যবহারে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সমর্থন-দৈনিক প্রথম আলো
  • টিকিটের জন্য আজও রাস্তায়  সৌদিপ্রবাসীরা-দৈনিক সমকাল
  • বাংলাদেশে করোনায় একদিনে ৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে-ইত্তেফাক
  • অবৈধ পথে  ক্ষমতায় আসতে ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি-দাবি ওবায়দুল কাদেরের-দৈনিক যুগান্তর
  • বাংলাদেশে গরু পাচার চক্রের সাথে বিএসএফএর যোগসাজস ফাঁস সিবিআই তদন্ত -কালের কণ্ঠ
  • এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে বেঁধে স্ত্রীকে গণধর্ষণের জেরে বিক্ষোভ উত্তাল-মানবজমিন

ভারতের শিরোনাম:    

  • কৃষক আন্দোলন ছড়ালো দেশ জুড়ে-আনন্দবাজার পত্রিকা 
  • কাশ্মীরে চীনা ড্রোন, পাকিস্তানের মদতে ভারতকে বিপাকে ফেলার ছক কষছে ড্রাগন-সংবাদ প্রতিদিন
  • এখনও সতর্ক না হলে করোনায় মৃতের সংখ্যা ২০ লাখে পৌঁছে যেতে পারে-হু'র সতর্ক বার্তা-আজকাল

কথাবার্তার বিশ্লেষণের বিষয়:

১. সিলেটে স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণের ঘটনায় ছাত্রলীগ কর্মী সাইফুরসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা, অস্ত্র উদ্ধার। ঘটনাটীকে আপনি কিভাবে দেখছেন?

২. ইসরাইল শান্তির শেষ সুযোগ ধ্বংস করে দিচ্ছে। একথা বলেছেন ফিলিস্তিনি স্বশাসন কর্তৃপক্ষের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস। আপনি কিভাবে বিশ্লেষণ করবেন বিষয়টিকে?
 

বিশ্লেষণের বাইরে গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি খবর:

পুলিশে বদলির রেকর্ড-এক আদেশেই কক্সবাজারের ১০৭৫ কনস্টেবল বদলি-দৈনিক ইত্তেফাক

Image Caption

কক্সবাজার জেলা পুলিশকে ঢেলে সাজাতে ব্যাপক রদবদলের অংশ হিসেবে কর্মকর্তা থেকে কনস্টেবল পর্যন্ত সবাইকে বদলি করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার এক আদেশেই কক্সবাজারের ১ হাজার ৭৫ কনস্টেবলকে বদলি করা হয়েছে। এর আগে গত ১৬ সেপ্টেম্বর এসপি মাসুদ হোসেনসহ ৭ পুলিশ কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়। কিছুদিন আগে ৩৪ জন ইন্সপেক্টর এবং এসআই ও এএসআইসহ ২৬৪ জন পুলিশ কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়েছে। সব মিলিয়ে এ পর্যন্ত বদলির আদেশ পাওয়া পুলিশ সদস্যের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৩৪৬ জন। এর মাধ্যমে পুলিশে বদলির রেকর্ড সৃষ্টি হয়েছে।

পুলিশের ইতিহাসে একযোগে জেলা পুলিশে এত বড় বদলির ঘটনা এই প্রথম। এক সঙ্গে এই বদলির ঘটনাকে অস্বাভাবিক মনে হলেও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, আসলে এখানে অস্বাভাবিকের বলে কিছু নেই। স্বাভাবিক নিয়মে পুলিশে বদলি করা হয়েছে।’ পুলিশের আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘চাকরির ক্ষেত্রে বদলি হইতেই পারে। স্বাভাবিক নিয়মে বদলি করা হয়েছে। এখানে অস্বাভাবিকের কিছু নেই।’

এদিকে জেলা পুলিশে একযোগে এত সংখ্যক বদলির ঘটনা নিয়ে বিভিন্ন মহলে নানা কথাবার্তা চলছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের মাদক ব্যবসায়ীদের যে তালিকা রয়েছে সেখানে পুলিশের কিছু সদস্যের নাম রয়েছে। ‘বন্দুকযুদ্ধে’ পুলিশের গুলিতে অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান নিহত হন। হয়তো এসব কারণে কক্সবাজার জেলা পুলিশকে ঢেলে সাজানো হয়েছে।

ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ বিক্ষোভে উত্তাল সিলেটের এমসি কলেজ-দৈনিক মানবজমিন
ছাত্রাবাসে স্বামীকে আটকে রেখে তরুণীকে গণধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদে মাঠে নেমেছেন শিক্ষার্থীরা। তাদের বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছে সিলেটের এমসি কলেজ ক্যাম্পাস। ন্যাক্কারজনক এ ঘটনার প্রতিবাদ ও অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের বিচার দাবিতে বিক্ষোভ করছেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

সিলেটে গণধর্ষণের ঘটনায় ফুঁসছে মানুষ

আজ শনিবার দুপুরে ক্যাম্পাস সংলগ্ন সিলেট-তামাবিল সড়কে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন তারা। এসময় তারা ধর্ষকদের বিচার দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেন। অবিলম্বে দোষীদের গ্রেপ্তারে প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান কলেজের শিক্ষার্থীরা।

এর আগে গতকাল শুক্রবার সিলেটের এমসি কলেজে স্বামীর সঙ্গে ঘুরতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হন ওই তরুণী। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে টিলাগড় এলাকার কলেজটির ছাত্রাবাসে এ ঘটনা ঘটে। ওই তরুণীকে ক্যাম্পাস থেকে তুলে ছাত্রাবাসে নিয়ে ধর্ষণ করা হয় বলে পুলিশ জানিয়েছে।

এ ঘটনায় ভিকটিমের স্বামী বাদী হয়ে শাহ পরান থানায় একটি মামলা করেছেন। মামলায় ছাত্রলীগের ৬ নেতাকর্মী ও অজ্ঞাত আরও ৩ জনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার আসামিরা হলেন- এমসি কলেজ ছাত্রলীগ নেতা ও ইংরেজি বিভাগের মাস্টার্সের ছাত্র শাহ মো. মাহবুবুর রহমান রনি (২৫), মাহফুজুর রহমান মাসুম (২৫), সাইফুর রহমান (২৮), রবিউল ইসলাম (২৫), অর্জুন লস্কর (২৫) ও তারেকুল ইসলাম তারেক (২৮)। এদের মধ্যে অর্জুন ও তারেক (২৮) বহিরাগত ছাত্রলীগ কর্মী বলে জানা গেছে। আসামিদের মধ্যে সাইফুরের বাড়ি বালাগঞ্জে, রবিউলের দিরাইয়ে, মাছুমের কানাইঘাটে, অর্জুনের জকিগঞ্জে, রনির হবিগঞ্জে এবং তারেকের বাড়ি সুনামগঞ্জে।

বার ভারতের কয়েকটি খবর তুলে ধরছি:

কৃষক আন্দোলন ছড়াল দেশ জুড়ে-দৈনিক আনন্দবাজার

কৃষি আইনের বিরুদ্ধে পঞ্জাব, হরিয়ানায় কৃষক আন্দোলন চলছিলই। শুক্রবার দেশের কৃষক সংগঠনগুলির ডাকা ভারত বন্ধের দিনে সেই বিক্ষোভ-আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ল দেশের বিভিন্ন প্রান্তে। পঞ্জাব, হরিয়ানা ছাড়াও কৃষকেরা বিক্ষোভ দেখিয়েছেন উত্তরপ্রদেশ, বিহার, কর্নাটক, মহারাষ্ট্র, পশ্চিমবঙ্গ-সহ বিভিন্ন রাজ্যে। কোথাও রাস্তা অবরোধ করে। কোথাও রেললাইনে শুয়ে পড়ে। কোথাও ধর্না-মিছিলের মাধ্যমে। অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে বিভিন্ন জায়গায় মোতায়েন করা হয়েছিল প্রচুর পুলিশ। কৃষকদের আন্দোলন সমর্থন জানিয়েছে কংগ্রেস, আরজেডি, তৃণমূল, বামেদের মতো বিরোধী দলগুলি। বন্ধের সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়েছে পঞ্জাব-হরিয়ানার বিভিন্ন জায়গায়।কৃষি বিলের বিরুদ্ধে পঞ্জাবে চাক্কা জ্যাম কর্মসূচি পালন করেছেন কৃষকেরা।কৃষক আন্দোলনের সাক্ষী থাকল ভোটমুখী বিহারও। এ দিন পটনায় কৃষক মিছিলে যোগ দেন লালুপ্রসাদ যাদবের দুই ছেলে তেজপ্রতাপ এবং তেজস্বী।

কাশ্মীরে চীনা ড্রোন, পাকিস্তানের মদতে ভারতকে বিপাকে ফেলার ছক কষছে ‘ড্রাগন’-দৈনিক সংবাদ প্রতিদিন

এবার ভারতকে বিপাকে ফেলতে জম্মু ও কাশ্মীরকে নিশানা করেছে চিন। উপত্যকায় ভারতীয় বাহিনীকে বেসামাল করতে, জঙ্গিদের দ্রুত অস্ত্র জোগান দেওয়ার জন্য পাকিস্তানকে নির্দেশ দিয়েছে পড়শি দেশটি। সম্প্রতি, নিয়ন্ত্রণরেখায় একাধিক চিনা ড্রোন গুলি করে নামানোর পর এমনটাই জানিয়েছেন এরক শীর্ষ সরকারি আধিকারিক।

সূত্রের খবর, কাশ্মীর উপত্যকাকে উত্তপ্ত করে তুলতে ইতিমধ্যে বেজিং থেকে নির্দেশ পৌঁছে গিয়েছে পাক সেনা ও গুপ্তচর সংস্থা আইএসআইয়ের হাতে। ওই নির্দেশে সাফ বলা হয়েছে, ড্রোনের মাধ্যমে বা সীমান্তে চোরাকারবারিদের মদতে কাশ্মীরে (Kashmir) সন্ত্রাসবাদীদের হাতে যেন প্রচুর অস্ত্র পৌঁছে দেয় পাকিস্তান। আর সেই চেষ্টায় জে খামতি রাখছে না রাওয়ালপিণ্ডি তা স্পষ্ট। সম্প্রতি, কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলটির ভারত-পাক সীমান্তে বেশ কয়েকটি ড্রোন গুলি করে নামিয়েছে ভারতীয় বাহিনী। বেশ কিছু অস্ত্র বয়ে নিয়ে আসছিল সেগুলি।

এখনও সতর্ক না হলে মৃতের সংখ্যা ২০ লক্ষে পৌঁছে যেতে পারে’, করোনা নিয়ে সতর্কবার্তা হু’র –দৈনিক আজকাল

করোনা ভাইরাস নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সতর্কতা

বাঁচার একমাত্র উপায় সম্মিলিতভাবে লড়াই করা। না হলেই মহাবিপদ। আগামীদিনে দ্বিগুণ হতে পারে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা। শনিবার এক ভার্চুয়াল সাংবাদিক বৈঠকে এমনই সতর্কবার্তা দিলেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার জরুরি বিভাগের কর্তা মাইক রায়ান। করোনার প্রকোপে বিশ্বজুড়ে ইতিমধ্যেই প্রায় ১০ লক্ষ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। মাইক রায়ান বলছেন, আমরা যদি এখনই সম্মিলিত হয়ে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ না করি, তাহলে আগামী দিনে এই মৃতের সংখ্যাটা ২০ লক্ষে পৌঁছে যেতে পারে।#

পার্সটুডে/গাজী আবদুর রশীদ/২৬

ট্যাগ