অক্টোবর ১২, ২০২১ ২৩:০৮ Asia/Dhaka

সুপ্রিয় পাঠক/শ্রোতা! ১২ অক্টোবর মঙ্গলবারের কথাবার্তার আসরে স্বাগত জানাচ্ছি আমি বাবুল আখতার। আশা করছি আপনারা প্রত্যেকে ভালো আছেন। আসরের শুরুতে ঢাকা ও কোলকাতার গুরুত্বপূর্ণ বাংলা দৈনিকগুলোর বিশেষ বিশেষ খবরের শিরোনাম তুলে ধরছি। এরপর গুরুত্বপূর্ণ দুটি খবরের বিশ্লেষণে যাবো। বিশ্লেষণ করবেন সহকর্মী সিরাজুল ইসলাম।

বাংলাদেশের শিরোনাম:

  • মতামত-মল্লযুদ্ধই কি তবে সুষ্ঠু নির্বাচনের পূর্বশর্ত-প্রথম আলো
  • অবৈধ সম্পদের মামলা-লুৎফুজ্জামান বাবরের ৮ বছরের কারাদণ্ড -মানবজমিন
  • ইভ্যালি পরিচালনা বোর্ড গঠন করবে হাইকোর্ট-ইত্তেফাক
  • ৯০ আর ২০২১ এর পটভূমি এক নয়-কাদের-যুগান্তর
  • আত্মসমর্পণ করে জামিন পেলেন ড. ইউনুস-কালের কণ্ঠ

ভারতের শিরোনাম:

  • গতিবিধির ওপর মুম্বই পুলিশের নজরদারি, অভিযোগ দায়ের এনসিবি কর্ত সমীর ওয়াংখেড়ের-আনন্দবাজার পত্রিকা
  • কৃষক মৃত্যুতে  জড়িত মন্ত্রীর অপসারণ চেয়ে মৌনব্রত নিলেন প্রিয়াঙ্কা- আজকাল-আজকাল 
  • রাতভর জিঙ্গবিরোধী অভিযান কাশ্মীর উপত্যকায়, সেনার গুলিতে নিহত ৩ লস্কর সদস্য–সংবাদ প্রতিদিন

কথাবার্তার বিশ্লেষণের বিষয়:

১.'সরকার পতনের দিবাস্বপ্ন বিএনপির রঙিন খোয়াবে পরিণত হবে'। কথাটি বলেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন এ শিরোনাম করেছে। কী বলবেন আপনি?

২. আফগানিস্তানকে গৃহযুদ্ধের মধ্যে ঠেলে দেয়ার কাজ হাতে নিয়েছে দায়েশ- একথা বলেছেন হিজবুল্লাহ মহাসচিব সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ। আপনার পর্যবেক্ষণ কী?

জনাব সিরাজুল ইসলাম আপনাকে আবারও ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

বিশ্লেষণের বাইরে গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি খবর:

উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে অস্ত্র, মাদকসহ গ্রেপ্তার ৬-প্রথম আলো

কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং ক্যাম্প থেকে অস্ত্র, মাদকসহ ছয় রোহিঙ্গাকে গ্রেপ্তার করেছেন ১৪ এপিবিএন ও জেলা পুলিশের সদস্যরা। এ সময় তাঁদের কাছ থেকে একটি দেশীয় ওয়ান শুটারগান, একটি কার্তুজ ও ২০০টি ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার ছয়জন হলেন নুর হোসেন (২৭), মোহাম্মদ ফারুক (৩৫), নুর হোসেন (৪০), মোহাম্মদ কামাল হোসেন (৩০), জিয়াউর রহমান (৩১) ও আয়াতুল্লাহ (২৮)। তাঁরা সবাই উখিয়ার বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বাসিন্দা বলে জানা গেছে।

ডিবির জিজ্ঞাসাবাদে যা বললেন মুসা বিন শমসের-মানবজমিন

ধনকুবের মুসা বিন শমসেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। সচিব পরিচয়ে প্রতারণার অভিযোগে তিন সহযোগীসহ গ্রেপ্তার আব্দুল কাদেরের সঙ্গে মুসা বিন শমসেরের সংশ্লিষ্টতার বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন গোয়েন্দা কর্মকর্তারা। মঙ্গলবার সাড়ে ৩ ঘন্টা ডিবি পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের মুখে মুসা বিন শমসের জানিয়েছেন, কাদের সম্পর্কে বেশি জানতেন না। প্রতারণার বিষয়টি তিনি বুঝতে পারেননি। এছাড়াও কাদেরের সঙ্গে কিভাবে পরিচয়, কেন কিভাবে যোগাযোগ হয়েছে এসব বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন তিনি। এর আগে মুসা বিন শমসেরকে ডিবি কার্যালয়ে হাজির হওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশের মাধ্যমে চিঠি দেয়া হয়েছিল। চিঠির প্রেক্ষিতে বিকালে স্ত্রী ও ছেলেকে নিয়ে ঢাকার মিন্টো রোডে গোয়েন্দা কার্যালয়ে যান মুসা বিন শমসের। বিকাল ৩টা ২৫ মিনিটের দিকে একটি গাড়িতে ডিবি কার্যালয়ে প্রবেশ করেন তিনি।

জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ডিবি কার্যালয় থেকে বের হন ৬টা ৫৫ মিনিটে।

মুসা বিন শমসেরকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সংবাদ সম্মেলন করেন ডিবির যুগ্ম কমিশনার (গুলশান) হারুন অর রশীদ। এসময় তিনি বলেন, অতিরিক্ত সচিব পরিচয়দানকারী আবদুল কাদেরের প্রতারণার দায় মুসা বিন শমসের এড়াতে পারবেন না। তিনি প্রতারক কাদেরকে তার আইন উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন। তাকে ২০ কোটি টাকার চেক দিয়েছেন। এমনকি তাকে বাবা, সোনা বলেও ডাকতেন মুসা বিন শমসের।

তবে প্রতারক কাদের সম্পর্কে বেশি জানতেন না বলে দাবি করেছেন মুসা বিন শমসের। এ বিষয়ে হারুন অর রশীদ বলেন, মুসা বিন শমসের বলেছেন প্রতারণার বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না। আমরা তাকে বলেছি, একজন নাইন পাস লোককে আপনি না বুঝে কীভাবে নিয়োগ দিলেন, তার থেকে ১০ কোটি টাকা নিয়ে কীভাবে লাভসহ ২০ কোটি টাকার চেক দিলেন? এসব বিষয়ে তিনি অনেক তথ্য দিয়েছেন। কাদেরের সম্পর্কে তিনি বেশি জানেন না বললেও আমরা তার সাথে কাদেরের অজস্র কথপোকথন পেয়েছি। প্রয়োজনে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আবারও ডাকা হতে পারে বলে জানান হারুন অর রশীদ।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম-কমিশনার হারুন অর রশিদ বলেন, প্রতারক আব্দুল কাদেরের সঙ্গে মুসা বিন শমসেরের বিভিন্ন ব্যবসায়িক সম্পর্কের চুক্তিপত্রসহ নানান তথ্য-উপাত্ত পাওয়া গেছে। এ কারণে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

এবার ভারতের কয়েকটি খবরের বিস্তারিত:

গতিবিধির ওপর মুম্বই পুলিশের নজরদারি, অভিযোগ দায়ের এনসিবি কর্তা সমীর ওয়াংখেড়ের-আনন্দবাজার পত্রিকা

বিস্তারিত খবরে লেখা হয়েছে, আরিয়ান কাণ্ডে মূল তদন্ত্রকারী অফিসার মাদক নিয়ন্ত্রক সংস্থা বা এনসিবির কর্তা সমীর ওয়াংখেড়ের গতিবিধির উপর নজরদারি চালানোর অভিযোগ উঠল মুম্বই পুলিশের বিরুদ্ধে। অভিযোগ তুললেন খোদ এনসবি কর্তাই। বিষয়টি তিনি মুম্বই পুলিশের শীর্ষ মহলেও জানিয়েছেন। যদিও তার উপর চরবৃত্তির কথা প্রকাশে স্বীকার করেননি সমীর।গত দুদিন ধরে তার পেছনে ওশিয়ারা থানার দুই পুলিশকর্মী ছায়াসঙ্গীর মতো তাকে অনুসরণ করছেন। কেন দুই পুলিশকর্মী তার পিছু নিচ্ছেন, তার গতিবিধির ওপর নজর রাখছেন তা নিয়ে রহস্য ক্রমেই ঘনীভূত হচ্ছে। আরিয়ান খান মাদক কাণ্ডের তদন্ত করছেন সমীর। যে ঘটনা নিয়ে তোলপাড় হচ্ছে দেশজুড়ে।তবে এরইমধ্যে সমীরের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন অনেকে।অভিযোগ উঠেছে রাজনীতির  যোগসাজসেই এ ধরনের কাজ করছেন সমীর। আরও অভিযোগ উটেছে বলিউড এবং মুম্বইয়ের বদনাম করতেই এধরণের কাজ করছেন সমীর। এ অভিযোগ তুলেছেন মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী নবাব মালিক।

রাতভর জিঙ্গবিরোধী অভিযান কাশ্মীর উপত্যকায়, সেনার গুলিতে নিহত ৩ লস্কর সদস্য–সংবাদ প্রতিদিন

সেনা জঙ্গির গুলির লড়াই থামছেই না কাশ্মীর উপত্যকায়। সোমবরাই জঙ্গি হামলায়  জম্মু-কাশ্মীরের পুঞ্চ সেক্টরে শহীদ হয়েছিলেন  এক সেনা অফিসারসহ মোট ৫ জওয়ান। তারপর থেকে লাগাতার উপত্যকার বিভিন্ন অংশে জঙ্গিবিরোধী অভিযান আরও জোরদার হয়েছে। সোমবার রাতভর যৌথবাহিনীর অপারেশনেও ৩ লস্কর জঙ্গি নিহত হয়েছে। উদ্ধার হয়েছে প্রচুর আগ্নেয়াস্ত্র। প্রাথমিকভাবে জানিয়েছে জম্মু কাশ্মীর পুলিশ।

কৃষক মৃত্যুতে  জড়িত মন্ত্রীর অপসারণ চেয়ে মৌনব্রত নিলেন প্রিয়াঙ্কা- আজকাল

বিস্তারিত খবরে লেখা হয়েছে, ছেলে হাজতে। কিন্তু বাবা এখনও মন্ত্রীত্ব সামলাচ্ছেন। এবার লখিমপুর খেরিতে কৃষক মৃত্যুর ঘটনায় জড়িত অজয় মিশ্রের অপসারণ দাবি করলেন কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। গতকাল সোনিয়া গান্ধী মৌনব্রত পালন করলেন। দাবি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রীর পদ থেকে সরতে হবে অজয় মিশ্রকে। গতসপ্তার ঘটনায় কানাঘুষো হচ্ছিল চাপে পড়ে মন্ত্রীত্ব ছাড়তে পারেন। কিন্তু নাহ শেষ পর্যন্ত মন্ত্রীর পদেই রয়ে গেলেন মিশ্র। তার অপসারণের কথা উড়িয়ে দিয়েছে শীর্ষ নেতৃত্ব। তিনি নিজেও  ঐ ঘটনার কথা অস্বীকার করেছেন।#

পার্সটুডে/গাজী আবদুর রশীদ/১২

 

ট্যাগ